বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Pakistan: ১২০০ বছরের হিন্দু মন্দির দখলমুক্ত হল পাকিস্তানে, পুজো দিলেন ভক্তরা
পাকিস্তানে দখলমুক্ত হল বাল্মিকী মন্দির। সংগৃহীত ছবি

Pakistan: ১২০০ বছরের হিন্দু মন্দির দখলমুক্ত হল পাকিস্তানে, পুজো দিলেন ভক্তরা

  • মন্দির ফিরে পাওয়ার আনন্দে মেতে ওঠেন অনেকেই। ফের সকলের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে মন্দিরের দরজা। বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ জড়ো হয়ে এই মন্দিরের দ্বার সকলের জন্য় খুলে দেন। লঙ্গরেরও আয়োজন করা হয় এখানে।

পাকিস্তানে থাকা মন্দির অবশেষে দখলমুক্ত হল। খুলে যাচ্ছে পাকিস্তানে হিন্দু মন্দিরের দরজা। প্রায় ১২০০ বছরের প্রাচীন এই মন্দির। পাক পঞ্জাব প্রদেশে এক খ্রীষ্টান পরিবারের দখলে ইদানিং ওই মন্দিরটি ছিল। লাহোরের আনারকলি বাজারের কাছেই রয়েছে এই মন্দির। তবে ওই খ্রীষ্টান পরিবার দাবি করেছিল তারা হিন্দু ধর্মে চলে এসেছেন। প্রায় দু দশক ধরে তাদের দখলেই ছিল এই মন্দির।

 কিন্তু এই প্রাচীন মন্দিরে সকলের প্রবেশাধিকার ছিল না। কেবলমাত্র বাল্মিকী সম্প্রদায়ের ব্যক্তিরাই ওই মন্দিরে ঢুকতে পারতেন। তবে আপাতত সেটিকে দখলমুক্ত করা হচ্ছে। আইনি পথেই অবশেষে এল জয়। ইভাকুই ট্রাস্ট প্রপার্টি বোর্ড এই মন্দিরটি দখলমুক্ত করার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নিয়েছিল। 

পাক সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুসারে ওই মন্দিরটি আগেই সংখ্য়ালঘু পরিবারের অধিকার রক্ষার জন্য় নিয়োজিত ইভাকুই ট্রাস্ট প্রপার্টি বোর্ডের হাতে অর্পণ করা হয়েছিল। কিন্তু ওই মন্দিরের জমির অধিকার দাবি করে ২০১০-১১ সালে আদালতে গিয়েছিল ওই খ্রীষ্টান পরিবার। 

এবার কোর্টের নির্দেশে ওই মন্দির ছাড়তে হচ্ছে খ্রীষ্টান পরিবারকে। এতদিন ধরে লাহোরের কৃষ্ণ মন্দিরটিই ছিল হিন্দুদের কাছে অন্যতম পীঠস্থান। এদিকে বাল্মিকী মন্দিরে সমস্ত হিন্দুদেরও প্রবেশাধিকার ছিল না। নানা বাধানিষেধ আরোপ করা হত। তবে এবার কোর্টের নির্দেশে সেই বাধা দূর হল অনেকটাই। এবার সকলেই পুজো দিতে পারবেন ওই মন্দিরে। মন্দির ফিরে পাওয়ার আনন্দে মেতে ওঠেন অনেকেই। ফের সকলের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে মন্দিরের দরজা। বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ জড়ো হয়ে এই মন্দিরের দ্বার সকলের জন্য় খুলে দেন। লঙ্গরেরও আয়োজন করা হয় এখানে।

বন্ধ করুন