বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ১৫ বছরের প্রণয় পরিণত বিবাহ বন্ধনে,দাঁড়িয়ে থেকে মা-বাবার বিয়ে দিল ১৩ বছরের ছেলে
ছবি সৌজন্যে লাইভ হিন্দুস্তান
ছবি সৌজন্যে লাইভ হিন্দুস্তান

১৫ বছরের প্রণয় পরিণত বিবাহ বন্ধনে,দাঁড়িয়ে থেকে মা-বাবার বিয়ে দিল ১৩ বছরের ছেলে

  • দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে একসঙ্গে থাকলেও তাঁরা বিবাহিত ছিলেন না। শেষে তাঁধের বিয়ে দেয় তাঁদেরই ১৩ বছরের ছেলে।

দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে একসঙ্গে থাকলেও তাঁরা বিবাহিত ছিলেন না। তাঁদের আবার ১৩ বছর বয়সী এক ছেলে রয়েছে। নাম অজয়। সেই পর্যন্ত সেই ছেলেই নিজে দাঁড়িয়ে থেকে বিয়ে দিলেন মা-বাবার। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের উন্নাওতে। বরের নাম নারায়ণ, বয়স ৬০। কনের নাম রামরতী, বয়স ৫৫।

নিজেই বাবার সঙ্গে বরযাত্রীর অংশ হিসেবে মায়ের বাড়িতে আসে সেই ছেলেটা। পাশাপাশি বিয়ে রসব রীতি নীতিতে অংশ নেয় ছেলেটি। তার দাদু তার মেয়ের কন্যাদানও করেন। অনেক আত্মীয় স্বজনও আসেন অনুষ্ঠানে। অনেক উপহারও দেন পান নবদম্পতি।

অজয় যখন বেড়ে উঠেছে। তখন সে জানতে পারে যে তার বাবা-মা আদতে বিবাহিত না। এই কথা জানতে পেরে অজয় খুব দুঃখ পায়। এরপরই মা-বাবার বিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল অজয়। সিদ্ধান্ত নিতেই বিভিন্ন আত্মীয়দের খবর পাঠায় অজয় নিজে। এরপরই বিয়ের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। আটটি গাড়িতে করে বরযাত্রী যায় রামরতীর বাড়িতে। অজয় বরযাত্রীর সঙ্গে নিজের মায়ের বাড়িতে যায়।

এরপর ছেলের হাত ধরেই যুগলের ১৫ বছরের প্রণয় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ৬০ বছরের নারায়ণ এবং ৫৫ বছরের রামরতী সাত পাকে ঘুরলেন। ১৩ বছরের ছেলের হাত ধরে এই জন্মের প্রেম আগামী সাত জন্মের জন্যে নিশ্চিত হল নারায়ণ-রামরতীর।

বন্ধ করুন