বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লাদাখে ফিরবে শান্তি? সীমান্ত থেকে সরবে সেনা? জবাব খুঁজতে আজ মুখোমুখি ভারত-চিন
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স

লাদাখে ফিরবে শান্তি? সীমান্ত থেকে সরবে সেনা? জবাব খুঁজতে আজ মুখোমুখি ভারত-চিন

  • সীমান্ত থেকে সেনা প্রত্যাহার নিয়ে সমাধান সূত্র খুঁজতে চুসুলের মল্ডোতে বৈঠকে বসবে দুই দেশের সেনার উচ্চপদস্থ কর্তারা।

দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে অস্থিরতা বজায় রয়েছএ পূর্ব লাদাখের সীমান্তে। চলতি বছরের প্রথম দিকে শান্তি ফেরার ইঙ্গিত মিললেও চিনের একরোখআ মনোভাবে সেই শান্তি প্রক্রিয়া ভেস্তে যাওয়ার পথে। এই পরিস্থিতিতে হট-স্প্রিং সীমান্তে সেনা প্রত্যাহার নিয়ে সমাধান সূত্র খুঁজতে চুসুলের মল্ডোতে বৈঠকে বসবে দুই দেশের সেনার উচ্চপদস্থ কর্তারা। লাদাখ সীমান্ত নিয়ে এটি দুই দেশের সেনার মধ্যকার ১৩তম বৈঠক হতে চলেছে।

পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় বিগত ১৬ মাস ধরে একটানা সীমান্ত সমস্যা চলছে ভারত আর চিনের মধ্যে। বিতর্কিত অঞ্চল থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়া নিয়ে ১২ বার দু'দেশের সামরিক আধিরকারিকদের মধ্যে বৈঠক হয়েছে। তবে সমাধান সূত্র এখনও বেরিয়ে আসেনি। এই আবহে গোগরা, হটস্প্রিংয়ে সংঘর্ষস্থল থেকে সেনা প্রত্যাহার নিয়ে আলোচনা করতে ১৩তম বৈঠক শুরু হতে চলেছে আজ।

সূত্রের খবর, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় এখনও পর্যন্ত মোটামুটি ১৮টি বিতর্কিত পয়েন্টকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এই স্থানগুলি সংক্রান্ত যাবতীয় বিবাদ ধাপে ধাপে মেটাতে চাইছে ভারত। উল্লেখ্য, চলতি বছরের জুন মাসে আচমকাই সীমান্তে চিনা ফৌজের আনাগোনা বাড়তে থাকে। ভারতের সেনা প্রধান এমএম নরবণে ইতিমধ্যেই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর ভারতীয় ফৌজ মোতায়েনের বিষয়টি পর্যালোচনা করেছেন। শীতের আগে পূর্ব লাদাখের পরিস্থিতি নিয়েও পর্যালোচনা করেছেন সেনা প্রধান।

এদিকে লাদাখের উত্তাপ ছড়িয়েছে অরুণাচলপ্রদেশেও। সেখানে কয়েকদিন আগেই চিনের পিপল'স লিবারেশন আর্মি-র ২০০ জন সেনাকে সীমান্ত পার করা থেকে বিরত রাখেন ভারতীয় জওয়ানরা। এলএসি-র তাওয়াং সেক্টরে ইয়াংসে-র কাছে মুখোমুখি হয় দুই সেনা। তবে ঘটনায় কোনও হতাহতের বা ক্ষয়ক্ষতির খবর মেলেনি।

 

বন্ধ করুন