বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভেঙে পড়ল ঝুলন্ত সেতু, অসমে নদীতে পড়ে হাবুডুবু খেল ছাত্রছাত্রীরা
অসমে সিংলা নদীর উপর এই ঝুলন্ত সেতুটি ভেঙে পড়েছে। (নিজস্ব চিত্র)
অসমে সিংলা নদীর উপর এই ঝুলন্ত সেতুটি ভেঙে পড়েছে। (নিজস্ব চিত্র)

ভেঙে পড়ল ঝুলন্ত সেতু, অসমে নদীতে পড়ে হাবুডুবু খেল ছাত্রছাত্রীরা

  • স্থানীয় বাসিন্দা গিয়াসউদ্দিন বলেন, বর্ষায় নদীতে প্রচুর জল থাকে। তবে এটা ভাগ্যের যে বর্ষাকালে স্কুল বন্ধ ছিল। যদি সেই সময় দুর্ঘটনা হত তবে প্রাণহানিও হতে পারত।

অসমের সিংলা নদীর উপর ঝুলন্ত ব্রিজ। মিজোরামের পাহাড় থেকে নেমে এসেছে এই নদী। তার উপরে থাকা ঝুলন্ত ব্রিজ পেরিয়েই যাতায়াত। সেই ব্রিজ ভেঙে পড়ে গিয়ে গুরুতর জখম হয়েছে অন্তত ১৫জন পড়ুয়া। স্থানীয় সূত্রে খবর, অসমের করিমগঞ্জ জেলায় স্কুল থেকে ফিরছিল পড়ুয়ারা। সোমবার বিকালে আচমকাই ভেঙে পড়ে ঝুলন্ত সেতুটি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, প্রায় শতাধিক পড়ুয়া ব্রিজের উপর চেপেছিল। তখনই তাদের চাপে নড়বড়ে সেতুটি ভেঙে পড়ে। কয়েকজন ওপারে যেতে পারলেও বাকিরা নদীতে পড়ে যায়। এদিকে বেশিরভাগ ছাত্র ছাত্রীই নবম শ্রেণির ছিল। তারা সাঁতার জানত। তারা একে অপরকে বাঁচিয় দেয়। অন্তত ৩০জন অল্প বিস্তর জখম হয়েছে। কয়েকজন পড়ুয়ার আঘাত গুরুতর। তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। 

স্থানীয় বাসিন্দা গিয়াসউদ্দিন বলেন, বর্ষায় নদীতে প্রচুর জল থাকে। তবে এটা ভাগ্যের যে বর্ষাকালে স্কুল বন্ধ ছিল। যদি সেই সময় দুর্ঘটনা হত তবে প্রাণহানিও হতে পারত। এটাই প্রমাণ করে যে আমাদের রাজ্যের পরিকাঠামোর কী অবস্থা। এখানে পাকা সেতু তৈরির জন্য বছরের পর বছর ধরে বলা হয়েছে। এদিকে তিন বছর আগে পাকা সেতু না করে এখানে ঝুলন্ত ব্রিজ করেছে প্রশাসন। করিমগঞ্জের ডেপুটি কমিশনার গোটা ঘটনা নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। যোগাযোগের স্থায়ী সমাধানের জন্য সমীক্ষাও করা হবে সরকারি তরফে। 

 

বন্ধ করুন