বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভাড়া দিতে না পারায় বাংলাদেশে লঞ্চ থেকে ছুড়ে ফেলা হল দুই শিশুকে!
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

ভাড়া দিতে না পারায় বাংলাদেশে লঞ্চ থেকে ছুড়ে ফেলা হল দুই শিশুকে!

  • শিশুরা জানায়, তারা ভাড়ার টাকা দিতে পারেনি। তাই তাঁদের ফেলে দিয়েছেন লঞ্চের কর্মচারীরা।

‌লঞ্চ থেকে দুই শিশুকে ছুড়ে ফেলার অভিযোগ উঠল কর্মচারীদের বিরুদ্ধে। অমানবিক এই ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকার মুন্সিগঞ্জের মেঘনা নদীতে। পুলিশ দুটি শিশুকেই উদ্ধার করেছে। তবে লঞ্চের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তির মতে, কেউ তাঁদের নদীতে ফেলে দেয়নি। শিশু দুটি নিজের ইচ্ছায় নদীতে ঝাঁপ দিয়েছে।

জানা গিয়েছে, গত শনিবার ঢাকার সদরঘাট থেকে যাত্রীদের নিয়ে চাঁদপুরে যাচ্ছিল একটি লঞ্চ। কিছু দূর যাওয়ার পরই লঞ্চ থেকে মেহেদুল হাসান (‌১৩)‌ ও সাকিব হাসান (‌১২)‌ নামে দুটি শিশুকে লঞ্চ কর্মচারীরা মেঘনা নদীতে ফেলে দেয় বলে অভিযোগ ওঠে। পুলিশ সূত্রে খবর, শিশু দুটিকে ভাসতে দেখে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে। জিজ্ঞাসাবাদের পর শিশুরা জানায়, তারা ভাড়ার টাকা দিতে পারেনি। তাই তাঁদের ফেলে দিয়েছেন লঞ্চের কর্মচারীরা। পুলিশ জানতে পেরেছে, মেহেদুল ও সাকিব দুজনেই ঢাকার সদরঘাট এলাকায় থাকে। এরা দুজনেই জল বিক্রি করে।

যে লঞ্চ থেকে এই দুই শিশুকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে, সেই লঞ্চের মালিক দেলোয়ার হোসেন জানান, ‘‌বড় বড় লঞ্চগুলি যখন ঘাটগুলির সামনে দিয়ে যায়, তখন স্থানীয় ট্রলারগুলি লঞ্চের গায়ে ভেড়ে। সেই সময় যাত্রীরা ওঠানামা করে। মুন্সিগঞ্জ লঞ্চঘাটের কাছ দিয়ে যাওয়ার সময় দুটি শিশু লাফ দেয়। ওরা ভেবেছিল ট্রলার এসে ওদের নিয়ে যাবে। কিন্তু এই লঞ্চ মুন্সিগঞ্জ ঘাটে নোঙর করে না।’‌ তিনি জানান, যাত্রীরা সব দেখেছেন। কেউ তাদের ফেলে দেয়নি। আমরা ফেলে দিলে যাত্রীরা লঞ্চ থামিয়ে দিতে পারত।

পুলিশের তরফে গজারিয়া থানার ওসি মহম্মদ রইছউদ্দিন জানান, দুই শিশুকে উদ্ধার করে মুন্সিগঞ্জের লঞ্চঘাটে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর শিশুদের আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের লঞ্চে তুলে দেওয়া হয়। 

বন্ধ করুন