বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শ্রীনগরে বড় সাফল্য! খতম হুরিয়ত চেয়ারম্যানের ছেলে-সহ দুই হিজবুল জঙ্গি
শ্রীনগরে গুলির লড়াইয়ের সময় পজিশন নিচ্ছেন নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানরা (ছবি সৌজন্য এএফপি)
শ্রীনগরে গুলির লড়াইয়ের সময় পজিশন নিচ্ছেন নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানরা (ছবি সৌজন্য এএফপি)

শ্রীনগরে বড় সাফল্য! খতম হুরিয়ত চেয়ারম্যানের ছেলে-সহ দুই হিজবুল জঙ্গি

  • সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে শহরে ইন্টারনেট পরিষেবা আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।

জম্মু ও কাশ্মীরে আরও দুই হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গিকে খতম করল নিরাপত্তা বাহিনী। পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, শ্রীনগরের নাওয়া কাদাল এলাকায় গুলির লড়াইয়ে দুই জঙ্গিকে নিকেশ করা হয়েছে। এনকাউন্টারের এলাকা থেকে দুটি অস্ত্র ও গোলাগুলি উদ্ধার হয়েছে।

তবে গুলির লড়াইয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর তিন জওয়ান আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন ওই আধিকারিক। পরে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের ডিজি দিলবাগ সিং জানান, মৃত জঙ্গিদের চিহ্নিত করা গিয়েছে। তারা হল শ্রীনগরের জুনেইদ আসরাফ খান এবং পুলওয়ামার তারিক আহমেদ শেখ। জুনেইদ হুরিয়তের চেয়ারম্যান মহম্মদ আসরাফ খানের ছোটো ছেলে। ডিজি বলেন, ‘তারিক গত মার্চেই হিজবুলে যোগ দিয়েছিল। গতরাতে তাকে খতম করা হয়েছে। একাধিক ঘটনায় জুনেইদের খোঁজ চলছিল। সে হিজবুলের ডিভিশনাল কম্যান্ডার ছিল এবং মধ্য কাশ্মীর এলাকারও দেখভাল করত।’

গতকাল মধ্যরাতে অভিযান শুরু করে রাজ্য পুলিশ এবং সিআরপিএফের একটি যৌথ দল। শহরের ঘনবসতিপূর্ণ এলাকার একটি অংশ ঘিরে ফেলে নিরাপত্তা বাহিনী। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, মধ্যরাতে আশপাশের এলাকা থেকে গুলির আওয়াজ শুনতে পান তাঁরা।

রাত তিনটে নাগাদ টুইট করে গুলির লড়াইয়ের কথা জানায় কাশ্মীর জোনের পুলিশ। তারপর মঙ্গলবার দুপুরে জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশের তরফে টুইটারে জানানো হয়, দু'জন জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে। দু'জনেই হিজবুলের সদস্য ছিল। যে জঙ্গি সংগঠনের কাশ্মীরের প্রধান রিয়াজ নাইকুকে চলতি মাসের শুরতেই নিকেশ করেছে নিরাপত্তা বাহিনী।

আধিকারিকরা জানিয়েছেন, সতর্কতামূলক ব্য়বস্থা হিসেবে শহরে ইন্টারনেট পরিষেবা আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।

বন্ধ করুন