বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পাকিস্তানের ২ ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত্যু কমপক্ষে ৩০ জনের, আহত ৫০
দুর্ঘটনাস্থল। (ছবি সৌজন্য টুইটার)
দুর্ঘটনাস্থল। (ছবি সৌজন্য টুইটার)

পাকিস্তানের ২ ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত্যু কমপক্ষে ৩০ জনের, আহত ৫০

  • স্থানীয় প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, ছয় থেকে আটটি বগি ‘সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস’ হয়েছে।

পাকিস্তানে দুটি ট্রেনের মুখোমুখি ধাক্কায় মৃত্যু হল কমপক্ষে ৩০ জনের। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৫০ জন। ট্রেনের মধ্যে এখনও ১৫ জন আটকে আছেন বলে আশঙ্কা উদ্ধারকারীদের। তার জেরে আরও বাড়তে পারে মৃতের সংখ্যা।

সোমবার দক্ষিণ পাকিস্তানের উচ্চ সিন্ধ জেলার ঘোটকির ধারকি নামে জায়গার কাছে দুর্ঘটনা ঘটেছে। পাকিস্তান রেলের মুখপাত্র জানিয়েছেন, করাচি থেকে সারগোধা মিল্লাত এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত হয়ে যায়। কয়েকটি বগি অন্য লাইনে চলে যায়। সেই সময় উলটোদিক থেকে আসছিল রাওয়ালপিণ্ডি-করাচি স্যার সইদ এক্সপ্রেস। দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। পাকিস্তানের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে যে ছবি দেখানো হয়েছে, তাতে কার্যত বিভীষিকায় পরিণত হয়েছে দুর্ঘটনাস্থল। চারিদিকে উলটে আছে ট্রেনের সবুজ বগি। কয়েকটি বগি রীতিমতো দুমড়ে-মুচড়ে গিয়েছে।

ঘোটকির ডেপুটি কমিশনার উসমান আবদুল্লাহ জানিয়েছেন, কমপক্ষে ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। ৫০ জন আহত হয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, দুর্ঘটনায় ১৩ থেকে ১৪ টি বগি উলটে গিয়েছে। ছয় থেকে আটটি বগি ‘সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস’ হয়েছে। উদ্ধারকারীরা জানিয়েছেন, ট্রেনের ভিতর একটি বগিতে এখনও যাত্রীরা আটকে আছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে বড় যন্ত্রপাতি আনা হয়েছে। কিন্তু তাঁদের উদ্ধার করার কাজ যথেষ্ট সমস্যার। রোহরি থেকে রওনা দিয়েছে উদ্ধারকারী দল। সেইসঙ্গে ঘোটকি ও আশপাশের হাসপাতালে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোটকির সিনিয়ক পুলিশ সুপার উমর তুফেল জানিয়েছেন, মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

বন্ধ করুন