বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নর্দমা এবং সেপটিক ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করার সময় ২০২১সালে দেশে মৃত্যু হয়েছে ২২ জনের

নর্দমা এবং সেপটিক ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করার সময় ২০২১সালে দেশে মৃত্যু হয়েছে ২২ জনের

নর্দমা এবং সেপটিক ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করার সময় ২০২১সালে দেশে মৃত্যু হয়েছে ২২ জনের (ফাইল ছবি) (HT_PRINT)

কর্ণাটক এবং তামিলনাড়ুতে পাঁচজন করে মারা যান নর্দমা এবং সেপটিক ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করতে গিয়ে। 

সামাজিক ন্যায়বিচার ও ক্ষমতায়ন মন্ত্রক মঙ্গলবার লোকসভাকে জানিয়েছে যে ২০২১ সালে এখনও পর্যন্ত নর্দমা এবং সেপটিক ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করার সময় ২২ জন মারা গেছে।

সাংসদ ভগীরথ চৌধুরীর একটি প্রশ্নের জবাবে সামাজিক ন্যায়বিচার ও ক্ষমতায়ন প্রতিমন্ত্রী রামদাস আথাওয়ালের লিখিত উত্তরে জানান যে কর্ণাটক এবং তামিলনাড়ুতে পাঁচটি করে মৃত্যু হয়েছে, দিল্লিতে চারটি, গুজরাতে তিনটি, হরিয়ানা ও তেলাঙ্গানায় ২টি করে এবং পঞ্জাবে ১টি মৃত্যু। গত বছর এই ধরনের ঘটনায় ১৯ জন মারা গিয়েছিল। ২০১৯, ২০১৮ এবং ২০১৭ সালে যথাক্রমে এই ধরনের ঘটনায় মৃতের সংখ্যা ছিল ১১৭, ৭০ এবং ৯৩।

যান্ত্রিক স্যানিটেশনের জন্য জাতীয় নীতির অংশ হিসাবে ১৪১৬ জন স্যানিটেশন কর্মীকে (অন্ধ্রপ্রদেশে ১৩৮৩ এবং রাজস্থানে ৩৩ জন) বিগত তিন আর্থিক বছরে এবং এই অর্থবছরে ড্রেন পরিষ্কারের জন্য সরঞ্জাম কেনার জন্য টাকা পেয়েছে। রাজ্য চ্যানেলাইজিং এজেন্সিগুলির মাধ্যমে রেয়াতি ঋণ বাবদ এই সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও নয়টি রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ১৪২ জন কর্মীকে ৫ লক্ষ মূলধন ভর্তুকি দেওয়া হয়েছে। ২০১৮-২০১৯ অর্থবর্ষ থেকে চলতি বছরের ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট ২৪ হাজার ৬০৯ জন স্যানিটেশন কর্মীকে আপস্কিলিং প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী রামদাস আথাওয়ালে।

বন্ধ করুন