বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ২৩০০ বছর পর মাটির তলা থেকে উঁকি, পাকিস্তানে আবিষ্কার হল বৌদ্ধ আমলের মন্দির!

২৩০০ বছর পর মাটির তলা থেকে উঁকি, পাকিস্তানে আবিষ্কার হল বৌদ্ধ আমলের মন্দির!

পাকিস্তানে আবিষ্কার হল বৌদ্ধ আমলের মন্দির (ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)

মন্দির ছাড়াও প্রত্নতাত্ত্বিকরা বৌদ্ধ যুগের ২৭০০টিরও বেশি নিদর্শন উদ্ধার করেছেন সেই ধ্বংসাবশেষ থেকে।

পাকিস্তানি এবং ইতালির প্রত্নতাত্ত্বিকদের একটি যৌথ খনন দল উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানে বৌদ্ধ যুগের ২৩০০ বছরেরও বেশি পুরনো অ্যাপসাইডাল মন্দির (বৌদ্ধ মন্দির থেকে হিন্দু মন্দিরে রূপান্তরিত) এবং আরও কয়েকটি মূল্যবান প্রত্নবস্তু আবিষ্কার করেছে। পাকিস্তানের সোয়াট অঞ্চলের প্রশাসনিক কর্মকর্তারা শনিবার এই বিষয়ে জানিয়েছেন।

খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের সোয়াট জেলার বারিকোট তহসিলের বৌদ্ধ আমলের বাজিরা শহরে এই প্রত্নতাত্ত্বিক আবিষ্কারটি হয়েছে। পাকিস্তানের প্রাচীনতম বৌদ্ধ আমলের মন্দির হিসেবে দাবি করা হয়েছে এটিকে। এই বিষয়ে এক কর্তা বলেন, ‘পাকিস্তানি এবং ইতালীয় প্রত্নতাত্ত্বিকরা একটি ঐতিহাসিক স্থানে যৌথ খননের সময় উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানে বৌদ্ধ যুগের ২৩০০ বছরেরও বেশি পুরানো অ্যাপসাইডাল মন্দির আবিষ্কার করেছে। সেখানে অন্যান্য মূল্যবান নিদর্শনও উদ্ধার করেছে সেই দলটি। সোয়াটে আবিষ্কৃত মন্দিরটি পাকিস্তানের তক্ষশীলায় আবিষ্কৃত মন্দিরের চেয়েও প্রাচীণ।’

মন্দির ছাড়াও প্রত্নতাত্ত্বিকরা বৌদ্ধ যুগের ২৭০০টিরও বেশি নিদর্শন উদ্ধার করেছেন যার মধ্যে মুদ্রা, আংটি, পাত্র রয়েছে যাতে গ্রিসের রাজা মেনান্ডারের আমলের খরোস্তি ভাষার লেখা রয়েছে। পাকিস্তানে ইতালীয় প্রত্নতাত্ত্বিক মিশনের প্রধান ডঃ লুকা মারিয়া অলিভেরি বলেন, বৌদ্ধ আমলের মন্দিরের আবিষ্কার প্রমাণ করেছে যে সোয়াটে তক্ষশীলার চেয়েও প্রাচীণ প্রত্নতাত্ত্বিক ধ্বংসাবশেষ রয়েছে। বাজিরা শহরের নিদর্শনগুলির সাম্প্রতিক আবিষ্কার প্রমাণ করেছে যে সোয়াট ছয় থেকে সাতটি ধর্মের পবিত্র স্থান ছিল।

বন্ধ করুন