বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'জোগান' নেই করোনা টিকার, বন্ধ মুম্বইয়ের ২৫ ভ্যাকসিন সেন্টার
'জোগান' নেই করোনা টিকার, বন্ধ মুম্বইয়ের ২৫ ভ্যাকসিন সেন্টার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
'জোগান' নেই করোনা টিকার, বন্ধ মুম্বইয়ের ২৫ ভ্যাকসিন সেন্টার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

'জোগান' নেই করোনা টিকার, বন্ধ মুম্বইয়ের ২৫ ভ্যাকসিন সেন্টার

  • পুরনিগমের তরফে জানানো হয়েছে, ২৫টি সেন্টার বাদ দিয়ে বাকি সব সেন্টারে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ চলছে। শুক্রবার পর্যন্ত এই সব সেন্টারে ভ্যাকসিনের পর্যাপ্ত জোগান আছে।

দেশজুড়ে করোনভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে। সেইসঙ্গে মানুষের মধ্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রবণতাও বাড়ছে। তবে চাহিদার তুলনায় জোগান কম থাকায় অনেক ভ্যাকসিন সেন্টারকেই বন্ধ রাখতে হচ্ছে। মুম্বইয়ে এই রকম ২৫টি ভ্যাকসিন প্রদানকারী সেন্টারকে বন্ধ করে দিতে হয়েছে। এই বিষয়ে বৃহন্মু্ম্বই পুরনিগমকেও জানানো হয়েছে। পুরনিগমের তরফে কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে যাতে যত দ্রুত সম্ভব ভ্যাকসিনের ডোজ পাঠানো সম্ভব হয়।

পুরনিগমের তরফে জানানো হয়েছে, ২৫টি সেন্টার বাদ দিয়ে বাকি সব সেন্টারে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ চলছে। শুক্রবার পর্যন্ত এই সব সেন্টারে ভ্যাকসিনের পর্যাপ্ত জোগান আছে।ভ্যাকসিনের জোগান যাতে ঠিক থাকে, সেজন্য পুরনিগমের তরফে সবরকম চেষ্টা চালানো হচ্ছে ।পুরনিগমের তরফে বিবৃতি পেশ করে জানানো হয়েছে, শহরে মোট ১১৮টি ভ্যাকসিন দেওয়ার কেন্দ্র আছে।প্রতিদিন গড়ে অন্তত ৪০,০০০-৫০,০০০ লোককে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ হচ্ছে। গত ৭ এপ্রিল পর্যন্ত ১৭ লাখ ৯ হাজার ৫৫০টি ভ্যাকসিনের ডোজ ছিল।এর মধ্যে ১৫ লাখ ৬১ হাজার ৪২০টি ডোজ ব্যবহার হয়েছে। বুধবার ১ লাখ ৪৮ হাজার ১৩০টি ডোজের মধ্যে দ্বিতীয় ডোজের জন্য রেখে দেওয়া হয়েছে। বাকি ১ লাখ ৩ হাজার ৩২০টি ডোজের মধ্যে বৃহস্পতিবার ব্যবহার করা হয়েছে ৫০,০০০ ডোজ। ফলে শুক্রবার পর্যন্ত চলে যাবে। কিন্তু এরপর ভ্যাকসিন লাগবে। কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে যাতে ভ্যাকসিনের জোগান বাড়ানো হয়।

প্রশাসনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ১৫ লাখ ৮০ হাজার ৭২৭ জনকে ইতিমধ্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে গিয়েছে যার মধ্যে স্বাস্থ্যকর্মী, করোনাযোদ্ধা হলেন ৫ লাখ ২৯ হাজার ৯১২ জন।৪৫ থেকে ৫৯ বছরের মধ্যে রয়েছে ৪ লাখ ৩ হাজার ৩৯৫ জন ও প্রবীণ নাগরিক হলেন ৬ লাখ ৪৭ হাজার ৪২০ জন।

বন্ধ করুন