বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জঙ্গিদমন অভিযানে মৃত্যু ৩ জওয়ান ও BSF কনস্টেবলের, নিকেশ ৩ জঙ্গি
কুপওয়ারা জেলার মাছিল সেক্টরে অভিযান এখনও চলছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
কুপওয়ারা জেলার মাছিল সেক্টরে অভিযান এখনও চলছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

জঙ্গিদমন অভিযানে মৃত্যু ৩ জওয়ান ও BSF কনস্টেবলের, নিকেশ ৩ জঙ্গি

  • এখনও অভিযান চলছে।

জম্মু ও কাশ্মীরের কুপওয়ারায় জঙ্গি-বিরোধী অভিযানে মৃত্যু হল এক ক্যাপ্টেন-সহ ভারতীয় সেনার তিন জওয়ানের। মৃত্যু হয়েছে এক বিএসএফ কনস্টেবলের। এখনও অভিযান চলছে বলে জানানো হয়েছে।

সূত্রের খবর, গতরাত একটা নাগাদ কুপওয়ারা জেলার মাছিল সেক্টরে নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে ৩.৫ কিলোমিটার দূরে সন্দেহভাজন গতিবিধি নজরে আসে। নিয়ন্ত্রণরেখাের বেড়ার কাছে গুলির লড়াইয়ে এক জঙ্গিকে নিকেশ করা হয়। বিএসএফের এক কনস্টেবলের মৃত্যু হয়। ভোর চারটে নাগাদ গুলির লড়াই থেমে যায়। 

খবর পেয়ে সেখানে আরও জওয়ান পাঠানো হয়। নজরদারি যন্ত্রে জঙ্গিদের গতিবিধি ধরা পড়ে। তারপর সকাল সাড়ে ১০ টা নাগাদ নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে ১.৫ কিলোমিটার দূরে আবারও গুলির লড়াই শুরু হয়। আরও দুই জঙ্গিকে নিকেশ করা হয়েছে। কিন্তু প্রাণ হারিয়েছেন তিন জওয়ান। দু'জন জওয়ান আহত হয়েছেন। তাঁদের উদ্ধার করা হয়েছে।

সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) তরফে জানানো হয়েছে, মাছিল সেক্টরে অভিযানের সময় কনস্টেবল সুদীপ কুমারের  মৃত্যু হয়েছে। ভারতীয় সেনার তরফে আরও জওয়ান পাঠানো হয়েছে। যৌথ অভিযান এখনও চলছে। তিনি বিএসএফের ১৬৯ নম্বর ব্যাটেলিয়নের সদস্য ছিলেন। তাঁর বাড়ি ত্রিপুরায়।

প্রাথমিকভাবে রবিবার প্রতিরক্ষা মুখপাত্র জানিয়েছিলেন, ৭-৮ নভেম্বর রাতে মাছিল সেক্টরে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর এক জঙ্গিকে নিকেশ করা হয়েছে। ভেস্তে দেওয়া হয়েছে অনুপ্রবেশের চেষ্টা। ওই জঙ্গির পরিচয় জানা যায়নি। ঘটনাস্থল থেকে একটি একে-৪৭ রাইফেল এবং দুটি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়। জঙ্গিরা ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছিল বলে জানিয়েছিলেন প্রতিরক্ষা মুখপাত্র।

বন্ধ করুন