ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

ফুলওয়ালার স্ত্রীর জনধন অ্যাকাউন্টে ক্রেডিট হল ৩০ কোটি টাকা!

একাধিক সন্দেহজনক লেনদেন হয়েছে অ্যাকাউন্টটি থেকে।

সামান্য ফুল ব্যবসায়ী। তাঁর স্ত্রীর জিরো ব্যালেন্স অ্যাকাউন্টে ৩০ কোটি টাকা দেখে চমকে উঠলেন কর্নাটকের সৈয়দ মালিক বুরহান। রামনগর জেলার চান্নাপাটনা শহরের বাসিন্দা বুরহান এর পর পুলিশে যোগাযোগ করেন। পুলিশের তদন্তে উঠে এসেছে যে মহিলার অ্যাকাউন্ট থেকে শয়ে শয়ে বেআইনি লেনদেন করা হয়েছে।

মহিলার এসবিআইতে জনধন অ্যাকাউন্ট আছে। ব্যাঙ্কের তরফ থেকে তদন্ত করে বলা হয়েছে যে ৩০ কোটি টাকা গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে ছিল না। তবে গত তিন মাস ধরে ৩০-৪০ লাখ টাকার বেশ কিছু লেনদেন হয়েছে সেই অ্যাকাউন্ট থেকে। এসবিআই জানিয়েছে যে গ্রাহক বা তার স্বামীর থেকে ওটিপি নিয়ে দুর্বৃত্তরা টাকার লেনদেন করেছে অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করে।

বুরহান জানিয়েছেন যে তিনি অ্যাকাউন্ট নম্বর ও ওটিপি একজনকে দিয়েছিলেন, যে ফোনে জিজ্ঞেস করেছিল। ব্যাঙ্কের বক্তব্য যেহেতু ওটিপি গ্রাহক শেয়ার করেছে, সেখানে এই জালিয়াতিতে ব্যাঙ্কের কোনও প্রত্যক্ষ যোগ নেই। পুলিশ এই বিষয়টি তদন্ত করছে।

বুরহান জানিয়েছে ব্যাঙ্কের কর্মীরা তার বাড়ি এসেছিল এই জিজ্ঞেস করতে যে এত টাকা অ্যাকাউন্টে এল কী করে। কী ভাবে ফাঁস হল বুরহানের স্ত্রীর অ্যাকাউন্টের তথ্য? স্ত্রীর জন্য একটি শাড়ি কিনেছিল সে।এরপর তাঁর কাছে একটা ফোন আসে যে সে একটা গাড়ি জিতেছে। শুধু অ্যাকাউন্ট নম্বরটি চাই।

সেই সময় মাত্র ৬০ টাকা ছিল তাদের অ্যাকাউন্টে। কিন্তু হঠাত্ বিশাল অঙ্কের টাকা জমা পড়ে। এর পর থেকেই ভয় পেয়ে যায় বুরহান। পুলিশ দেখেছে এক নয় একাধিক লেনদেন হয়েছে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টটি থেকে। এই লেনদেনগুলি কেন করা হয়েছিল, এর মাধ্যমে কে লাভবান হয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। দোষীদের শাস্তি দেওয়া হবে বলে পুলিশের আশ্বাস।

বন্ধ করুন