ছবিটি প্রতীকী।
ছবিটি প্রতীকী।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে সৌদিতে নজরবন্দি কেরালার ৩০ নার্স

খবর পেয়ে কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকরকে চিঠি লিখে অবিলম্বে মন্ত্রকের মধ্যস্থতার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভরতি হলেন সৌদি আরবে কর্মরত ৩০ জন ভারতীয় নার্স। তাঁরা সকলে কেরালার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে।

খবর ছড়িয়ে পড়ার পরে কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকরকে চিঠি লিখে অবিলম্বে মন্ত্রকের মধ্যস্থতার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী বিদেশমন্ত্রীকে জানিয়েছেন, ‘খবর পাওয়া যাচ্ছে যে সৌদি আরবের আভা শহরের আল হায়াত হাসপাতালে কর্মরত কয়েক জন নার্স ওই ভাইরাসের দ্বারা সংক্রামিত হয়েছেন। তাঁদের সঠিক চিকিত্সা ও নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে বিদেশ মন্ত্রকের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।’

অসুস্থ নার্সদের মধ্যে কয়েক জন কেরালায় তাঁদের আত্মীয়দের ফোন করলে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। একটি মালয়ালম সংবাদ চ্যানেলে ফোন করে তাঁদের একজন জানিয়েছেন, ‘দুই দিনের বেশি আমাদের হাসপাতালের দু’টি ঘরে আটকে রাখা হয়েচছে। এখনও পর্যন্ত যথাযথ পরীক্ষা করা হয়নি এবং আমাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহারও করা হচ্ছে। আমরা এই বিষয়ে ভারতীয় দূতাবাসে অভিযোগ জানিয়েছি।’

বিদেশমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী ভি মুরলীধরণ জানিয়েছেন, বর্তমানে ভাইরাস আক্রান্ত ওই নার্সদের অবস্থা আগের চেয়ে স্থিতিশীল। তাঁদের উপর নজর রাখছেন ভারতীয় দূতাবাসের কর্মীরা। তাঁর দাবি, ওই হাসপাতালে প্রায় ১০০ জন ভারতীয় নার্স কাজ করেন। তাঁদের মধ্যে ৩০ জনের উপরে নজর রাখা হয়েছে। নতুন কোনও ভাইরাস আক্রান্তের খবর পাওয়া যায়নি।

সূত্রে খবর, এক ফিলিপিনো রোগীর সেবা করতে গিয়ে মারাত্মক করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে বছর আটত্রিশের কোট্টায়মের এট্টুমান্নুরের বাসিন্দা এক সেবিকার। তাঁর থেকেই বাকি নার্সদের মধ্যে ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে।

তবে হাসপাতালের ঘরে আটক ভারতীয় নার্সদের দাবি, কোনও পরীক্ষা ছাড়া স্রেফ আতঙ্কের বশেই তাঁদের একঘরে করা হয়েছে।

বন্ধ করুন