বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ইউরোপ যাওয়ার সিরিয়ার কাছে ভয়াবহ নৌকাডুবিতে মৃত ৩৪
আহতদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছে স্থানীয় হাসপাতালে। ছবি ডয়েচে ভেলে

ইউরোপ যাওয়ার সিরিয়ার কাছে ভয়াবহ নৌকাডুবিতে মৃত ৩৪

  • সংকটে থাকা লেবানন ছেড়ে ইউরোপ যেতে অনেকেই মরিয়া। এছাড়া সিরিয়া ও ফিলিস্তিনের কিছু মানুষও অভিবাসন প্রত্যাশী হয়ে ইউরোপ যেতে চান। লেবাননে গত ২০১৯ থেকে আর্থিক সংকট চলছে।

আবার অভিবাসন প্রত্যাশীদের নৌকাডুবি। সিরিয়ার কাছে। বৃহস্পতিবারের এই নৌকাডুবিতে মারা গেছেন ৩৪ জন। অভিবাসন প্রত্যাশীরা লেবানন থেকে সমুদ্রপথে ইউরোপ যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। সিরিয়ার কাছে তাদের নৌকা ডুবে যায়।

ডিরেক্টর জেনারেল অফ পোর্টস সামের কুবরুসলি জানিয়েছেন, নৌকাটি কয়েকদিন আগে লেবানন ছেড়ে গিয়েছিল। নৌকায় মোট ১৫০ জন অভিবাসন প্রত্যাশী ছিলেন বলে একজন জীবীত ব্যক্তি জানিয়েছেন। কিছু মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজ চলছে। সিরিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বাসেল হাসপাতালে ২০ জনের চিকিৎসা চলছে। নৌকাটিতে লেবানিজদের পাশাপাশি সিরিয়ার মানুষও ছিলেন। অনেকের কাছে কোনো পরিচয়পত্র ছিল না।

ইউরোপ যেতে মরিয়া

সংকটে থাকা লেবানন ছেড়ে ইউরোপ যেতে অনেকেই মরিয়া। এছাড়া সিরিয়া ও ফিলিস্তিনের কিছু মানুষও অভিবাসন প্রত্যাশী হয়ে ইউরোপ যেতে চান। লেবাননে গত ২০১৯ থেকে আর্থিক সংকট চলছে। চারভাগের মধ্যে তিনভাগ মানুষই গরিব হয়ে গেছেন। প্রচুর মানুষ এখন বিপজ্জনক সমুদ্র পার হয়ে বেআইনিভাবে ইউরোপ যেতে চান। এর মধ্যে লেবাননের মানুষ যেমন আছেন, তেমনই সেখানে আশ্রয় নেয়া সিরীয় শরণার্থীও আছেন।

আর এটা করতে গিয়েই নিয়মিত নৌকাডুবি হয়। গত এপ্রিলে নৌকাডুবি হয়ে ছয় জন মারা গেছেন। সেপ্টেম্বরে তুরস্কের কোস্ট গার্ড ছয়জন অভিবাসন প্রত্যাশীর মৃত্যুর কথা জানিয়ে বলেছিল, তারা ৭৩ জনকে উদ্ধার করেছে। তারা লেবানন থেকে ইটালি যাওয়ার চেষ্টা করছিল।

(বিশেষ দ্রষ্টব্য: প্রতিবেদনটি ডয়চে ভেলে থেকে নেওয়া হয়েছে। সেই প্রতিবেদনই তুলে ধরা হয়েছে। হিন্দুস্তান টাইমস বাংলার কোনও প্রতিনিধি এই প্রতিবেদন লেখেননি।)

বন্ধ করুন