বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাংলার থেকেও খারাপ অবস্থা? ওই রাজ্যে ৪০০ সরকারি স্কুলে একজনও শিক্ষক নেই
পঞ্জাবের সরকারি স্কুলের শোচনীয় পরিস্থিতি উঠে এসেছে সমীক্ষায়। প্রতীকী ছবি (HT File) (HT_PRINT)

বাংলার থেকেও খারাপ অবস্থা? ওই রাজ্যে ৪০০ সরকারি স্কুলে একজনও শিক্ষক নেই

  • তিনি জানিয়েছেন ৬০জন প্রিন্সিপালকে কানাডা, ইংল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরে পাঠানো হবে। সেখানে কীভাবে স্কুল চলে তা তাঁরা দেখে আসবেন। পাশাপাশি ১০০টি সরকারি স্কুলে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের মধ্যে একটি পাইলট প্রজেক্ট চালু করা হবে। সেখানে মূলত উদ্যোগপতি হওয়ার ব্যাপারে শিক্ষা দেওয়া হবে।

উদ্বেগজনক ঘটনা।পঞ্জাবের শিক্ষামন্ত্রী হরজোত সিং বেইনস রবিবার জানিয়েছেন, রাজ্যে ২০,০০০ সরকারি স্কুলের মধ্যে ৪০০ স্কুলে কোনও শিক্ষক নেই। ১৬০০ স্কুলে মাত্র একজন শিক্ষক রয়েছেন। শিক্ষা দফতর আয়োজিত একটি সমীক্ষার প্রসঙ্গে একথা জানিয়েছেন পঞ্জাবের শিক্ষামন্ত্রী। প্রশ্ন উঠছে তবে কি বাংলার থেকেও খারাপ অবস্থা ওই রাজ্যে?

স্থানীয় গুরু নানক স্টেডিয়ামের একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, স্কুলের পরিকাঠামো, ল্যাব, স্টাফ, খেলার মাঠ, টয়লেট এসব রয়েছে কি না তা জানতে সমীক্ষা হয়েছিল। তখনই বিষয়টি সামনে আসে। তিনি বলেন, স্বাধীনতার ৭৫ বছর পরেও সরকারি স্কুলের পরিকাঠামোর এই দুর্বল পরিস্থিতি খুব দুঃখজনক।

তিনি জানিয়েছেন ৬০জন প্রিন্সিপালকে কানাডা, ইংল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরে পাঠানো হবে। সেখানে কীভাবে স্কুল চলে তা তাঁরা দেখে আসবেন। পাশাপাশি ১০০টি সরকারি স্কুলে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের মধ্যে একটি পাইলট প্রজেক্ট চালু করা হবে। সেখানে মূলত উদ্যোগপতি হওয়ার ব্যাপারে শিক্ষা দেওয়া হবে। ব্যবসার ক্ষেত্রে অভিনব আইডিয়ার জন্য প্রতি ছাত্রকে ২ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। দিল্লির সরকারি স্কুলেও এই ধরনের প্রজেক্ট চালু রয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের মধ্যে প্রতিভার কোনও অভাব নেই। আগামী দিনে তারা যাতে সফল উদ্যোগপতি হতে পারে সেজন্য় সবরকমভাবে সহায়তা করছে সরকার। 

বন্ধ করুন