বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পাঁচ বছরের শিশুকে গরম স্টিল দিয়ে পায়ে ছ্যাঁকা, গ্রেফতার মা
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

পাঁচ বছরের শিশুকে গরম স্টিল দিয়ে পায়ে ছ্যাঁকা, গ্রেফতার মা

  • এই ইডুক্কিতে বাবা মা, প্রতিবেশিদের দ্বারা শিশুদের ওপর শারীরিক ও যৌন নির্যাতনের ঘটনা আগেও হয়েছে।

কথা না শোনায় পাঁচ বছরের শিশুকে গরম স্টিলের মই দিয়ে পায়ের তালুতে ছ্যাঁকা মায়ের। শিশুটিকে খোড়াতে দেখে আশেপাশের প্রতিবেশিদের চোখ যায়। পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে ওই মহিলাকে গ্রেফতার করেছে। শিশুটিরও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে কেরালার ইডুক্কি জেলার পেথট্টি গ্রামে। গত শুক্রবার প্রতিবেশিরা লক্ষ্য করে, পাঁচ বছরের শিশুটি খুড়িয়ে খুড়িয়ে হাঁটছে। প্রতিবেশিরা তাঁকে এই অবস্থা হওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করতেই তাঁরা জানতে পারে, মা তাঁকে শাস্তি দিয়েছে।

 শিশুটির পায়ের তালু, পায়ে আগুনে পড়ে যাওয়ার ছাপ দেখতে পান তাঁরা। সঙ্গে সঙ্গে এই বিষয়ে পুলিশে সতর্ক করে দেন প্রতিবেশিরা। পুলিশ এসে প্রথমে শিশুটিকে শান্তনপাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। পরে তাঁকে আদমালি তালুক হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। শুক্রবার বিকেলেই শিশুটির মাকে গ্রেফতার করা হয়।

শিশুটির মায়ের বিরুদ্ধে জুভেনাইল জাস্টিস আইনের ৭৫ নম্বর ধারায় মামলা দায়ের করা হয়। পুলিশ প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, শিশুটির চিকিৎসার ক্ষেত্রে আর কোনও কিছু প্রয়োজন কিনা, সেবিষয়ে নজর রাখা হচ্ছে। ইডুক্কির চাইল্ড প্রোটেকশান অফিসার এম জি গীতা জানিয়েছেন, পাঁচ বছরের ওই নাবালকের একটি সাড়ে তিন বছরের বোনও রয়েছে।

 তাঁদেরকে চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটির সামনে নিয়ে আসা হবে। এরপর তাঁদের চাইল্ড কেয়ার সেন্টারে পাঠানো হবে। শিশুটির চিকিৎসার জন্য যদি কোনও আর্ছিক সহয়তা প্রয়োজন হয়, তাহলে তা বহন করতে প্রস্তুত চাইল্ড প্রোটেকশান ইউনিট। উল্লেখ্য, এই ইডুক্কিতে বাবা মা, প্রতিবেশিদের দ্বারা শিশুদের ওপর শারীরিক ও যৌন নির্যাতনের ঘটনা আগেও হয়েছে। ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে ইডুক্কিতে মদের বোতল ফেলে দেওয়ার জন্য মদ্যপ বাবা তাঁর ৬ বছরের মেয়েকে মেরে হাত ভেঙে দেয়।

বন্ধ করুন