বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 7th Pay Commission: দীপাবলির আগে ‘ট্রিপল’ সুখবর পেতে পারেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা, কী কী?
দীপাবলির আগে ‘ট্রিপল ধামাকা’ লাভের সুযোগ আছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের সামনে। এমনই জল্পনা তৈরি হয়েছে। (ছবিটি প্রতীকী)
দীপাবলির আগে ‘ট্রিপল ধামাকা’ লাভের সুযোগ আছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের সামনে। এমনই জল্পনা তৈরি হয়েছে। (ছবিটি প্রতীকী)

7th Pay Commission: দীপাবলির আগে ‘ট্রিপল’ সুখবর পেতে পারেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা, কী কী?

  • কী কী সেই ‘ট্রিপল ধামাকা’?

দীপাবলির আগে ‘ট্রিপল ধামাকা’ লাভের সুযোগ আছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের সামনে। এমনই জল্পনা তৈরি হয়েছে। যদিও বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রের তরফে কোনও মন্তব্য করা হয়নি।

কী কী সেই ‘ট্রিপল ধামাকা’?

১) একাধিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের আবারও ডিয়ারনেস অ্যালোয়েন্স (ডিও) বাড়ানো হতে পারে। সেইসঙ্গে বাড়তে পারে অবসরপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ডিয়ারনেস রিলিফও (ডিআর)। সেক্ষেত্রে ডিএ ও ডিআর তিন শতাংশ বাড়তে পারে বলে ধারণা সংশ্লিষ্ট মহলের। 

২) কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ‘এরিয়ার’ পেতে পারেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীরা। 

৩) সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, দীপাবলির ঠিক আগেই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের প্রভিডেন্ট ফান্ড (পিএফ) অ্যাকাউন্টে সুদ জমা পড়তে পারে।

এমনিতে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর কয়েক মাসে আগে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা (ডিএ) বাড়ানো হয়েছে। সেইসঙ্গে ডিআর বেড়েছে অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারীদের। চলতি বছরের জুলাই থেকে ২৮ শতাংশ ডিএ বা ডিআর দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে। যদিও করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে যে তিন দফার (গত বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত তিন শতাংশ, জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত চার শতাংশ এবং চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত চার শতাংশ ডিএ) ডিএ বা ডিআর স্থগিত ছিল, তার ‘এরিয়ার’ দেওয়া হয়নি।

তারইমধ্যে চলতি মাসের গোড়ার দিকে রেলকর্মীদের জন্য বোনাসের ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। গত ৬ অক্টোবর কেন্দ্র জানিয়েছে, ২০২০-২১ অর্থবর্ষে নন-গেজেটেড রেলকর্মীদের ‘প্রোডাক্টিভিটি’ সংক্রান্ত ‘দীপাবলি বোনাসে’ অনুমোদন দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। তবে বোনাস পাবেন না আরপিএফ (রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স) বা আরপিএসএফ (রেলওয়ে প্রোটেকশন স্পেশাল ফোর্স) কর্মীরা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর দাবি করেন, সেই সিদ্ধান্তের ফলে লাভবান হবেন প্রায় ১১.৫৬ লাখ নন-গেজেটেড রেলকর্মী। সেজন্য কেন্দ্রের কোষাগার থেকে প্রায় ১,৯৮৫ কোটি টাকা খরচ হবে।

বন্ধ করুন