বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ত্রিপুরায় বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া শহরের উন্নয়নে খরচ হবে ৮০ কোটি
ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব (ফাইল ছবি, সৌজন্য, টুইটার @BjpBiplab)
ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব (ফাইল ছবি, সৌজন্য, টুইটার @BjpBiplab)

ত্রিপুরায় বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া শহরের উন্নয়নে খরচ হবে ৮০ কোটি

  • ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, স্পেশাল ইকনমিক জোন, ইন্টিগ্রেটেড চেক পোস্ট, মৈত্রী সেতু তৈরির ব্যাপারেও উদ্যোগ নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া শহরের উন্নয়নে প্রায় ৮০ কোটি টাকা খরচ করবে ত্রিপুরা সরকার। আগরতলা থেকে প্রায় ৯০ কিলোমিটার দূরে এই শহর। এই শহরের সার্বিক উন্নয়নে বিপুল টাকা খরচ করা হবে বলে জানিয়েছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। রবিবার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব বলেন, ‘এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের মাধ্যমে সাব্রুমের উন্নয়নের জন্য ৮০ কোটি টাকা খরচ করা হবে। সাব্রুমে একটি হাসপাতালের উদ্বোধন করে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, সাব্রুমের উন্নয়নের ব্যাপারে সরকার চেষ্টা চালাচ্ছে। এখানকার মানুষ দীর্ঘদিন উন্নয়ন দেখেননি।’ এদিকে কোন কোন ক্ষেত্রে উন্নয়ন হবে সেকথাও জানিয়েছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী। তবে মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণায় খুশি সাধারণ মানুষ। 

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, স্পেশাল ইকনমিক জোন,  ইন্টিগ্রেটেড চেক পোস্ট, মৈত্রী সেতু তৈরির ব্যাপারেও উদ্যোগ নেওয়া হবে।' পাশাপাশি এখানে ১০০ বেডের হাসপাতাল তৈরির ব্যাপারেও তিনি জানিয়েছেন। ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ‘চিকিৎসকদের আর কোনও সংকট নেই। ইতিমধ্যেই ৩৯দিনে আমরা মোট ২৫৬জন চিকিৎসক নিয়োগ করেছি। আমাদের আশা এই চিকিৎসা পরিষেবা সাধারণ মানুষের কাজে লাগবে।’ প্রসঙ্গত এই হাসপাতাল নির্মাণে প্রায় ১৩.৫ কোটি টাকা খরচ করা হয়েছে। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, ভোটের আগে উন্নয়নে বিশেষ নজর দিচ্ছে সরকার। সেই নিরিখে এবার সাব্রুমের ভাগ্যে শিকে ছিঁড়ছে।  

 

বন্ধ করুন