বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ৫টাকার চকোলেট কিনে দেবে মা! আবদার করেছিল মেয়ে, বদলে জুটল গরম লোহার রডের মার
শিশুকে গরম লোহার রড দিয়ে মারের অভিযোগ সৎ মায়ের বিরুদ্ধে। প্রতীকী ছবি।

৫টাকার চকোলেট কিনে দেবে মা! আবদার করেছিল মেয়ে, বদলে জুটল গরম লোহার রডের মার

  • ভয়াবহ ঘটনা। চকোলেট, বিস্কুট কেনার জন্য মাত্র ৫টাকা চেয়েছিল মেয়ে। তার বদলে লোহার রডের ছ্যাঁকা দিল সৎ মা। এমনটাই অভিযোগ। 

এমনটাও হয়। মায়ের কাছে চকোলেট আর বিস্কুটের জন্য ৫ টাকা চেয়েছিল ছোট্ট মেয়ে। কী আর এমন বয়স। মাত্র ১০ বছর। চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ে। তবে মেয়ের এই আবদার ভালো লাগেনি মায়ের। আর তারই পরিণতিতে ওই মেয়েকে গরম লোহার রড দিয়ে মারধর করার অভিযোগ সৎ মায়ের বিরুদ্ধে। ওড়িশার গঞ্জাম জেলার বেরহামপুরের ঘটনা। পুলিশ ইতিমধ্যেই ওই সৎ মাকে গ্রেফতার করেছে।

কিন্তু প্রতিবেশীদের প্রশ্ন নিজের মা না হলেও এভাবে নৃশংস ভাবে অত্য়াচার করবে একরত্তি বাচ্চার উপর? এটা মানা যায়। স্থানীয় সূত্রে খবর, মেয়েটির গালে, পিঠে, কাঁধে ছ্যাঁকা দেওয়ার দাগ হয়ে গিয়েছে। সে যখন টিউশন পড়তে যাচ্ছিল তখন পাড়ার লোকজনের তার ওই ক্ষত চিহ্ন দেখে সন্দেহ হয়। তাঁরাই এনিয়ে জানতে চান। তারপর গোটা ঘটনা খুলে বলে চতুর্থ শ্রেণির ওই ছাত্রী। 

মেয়েটির কাকা ওই মহিলার বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করেছেন। মেয়েটিকে আপাতত একটি চাইল্ড কেয়ার ইনস্টিটিউশনে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, ৩০ বছর বয়সী ওই মা মেয়েটিকে লোহার রড দিয়ে মারধর করার পরে সেগুলি যাতে বাইরের লোকজন দেখতে না পান তার ব্য়বস্থাও করেছিলেন। তিনি ফেস পাউডার দিয়ে সেগুলি ঢেকে দেন। এমনকী মেয়েটি যদি বাইরে মুখ খোলে তবে তাকে আবার মারধর করা হবে বলেও শাসিয়ে ছিলেন। কিন্তু প্রতিবেশীদের প্রশ্নের মুখ চুপ করে থাকতে পারল না একরত্তি।

 

 

 

 

বন্ধ করুন