বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > থাকার জায়গা নেই জঙ্গলে, ভবঘুরে অবস্থা ১২টি বাঘের, হানা দিতে পারে লোকালয়ে
বাঘেরা সাধারণত নিজেদের এলাকার মধ্যেই থাকতে ভালোবাসে। (File Photo) (HT_PRINT)

থাকার জায়গা নেই জঙ্গলে, ভবঘুরে অবস্থা ১২টি বাঘের, হানা দিতে পারে লোকালয়ে

  • তুলনায় শক্তিশালী বাঘেরা দুর্বল বাঘেদের তাড়িতে দিচ্ছে। তার থেকেও বড় উদ্বেগ, তারা যদি এবার বর্ষার সময় জঙ্গলের বাইরে বেরিয়ে পড়ে তাহলে লোকালয়ে ঢুকে পড়বে। এমনটাই জানিয়েছেন বনকর্তা।

শচিন সাইনি

এক অদ্ভূত সমস্যার মধ্যে পড়েছে রাজস্থানের রণথম্বোর টাইগার রিজার্ভ ফরেস্ট। গত ৮ বছরে বাঘের সংখ্যা অন্তত ৪৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এর জেরে সমস্য়াও বাড়ছে ক্রমশ। কারণ জঙ্গলে থাকার মতো পর্যাপ্ত জায়গা তাদের নেই। বাধ্য হয়েই এবার লোকালয়ে হানা দিচ্ছে তারা। আর তখনই সমস্যা তৈরি হচ্ছে বলে দাবি করা হচ্ছে।

সরকারি তথ্য অনুসারে ২০১৪ সালে এই সংখ্যাটা ছিল ৫৯। বর্তমানে সেই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছেন ৮৬টি। এদিকে ১৩৩৪ বর্গ কিমি এলাকাতেই তাদের থাকতে হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই এর জেরে সমস্যা বাড়ছে।

সূত্রের খবর ৩-৫ বছর বয়সী বয়সী অন্তত ১২টি বাঘের কোনও নির্দিষ্ট এলাকাই নেই। তারা এদিক ওদিক ঘুরে বেড়াচ্ছে। রণথম্বোর রিজার্ভ ফিল্ড ডিরেক্টর সেদু রাম যাদব জানিয়েছেন, একাধিক বাঘের নির্দিষ্ট কোনও থাকার এলাকা নেই। কিন্তু বাঘেরা সাধারণত নির্দিষ্ট এলাকায় থাকতে ভালোবাসে। সেই এলাকায় তারা অন্য কোনও বাঘকে ঘেঁষতে দেয় না।

তুলনায় শক্তিশালী বাঘেরা দুর্বল বাঘেদের তাড়িতে দিচ্ছে। তার থেকেও বড় উদ্বেগ, তারা যদি এবার বর্ষার সময় জঙ্গলের বাইরে বেরিয়ে পড়ে তাহলে লোকালয়ে ঢুকে পড়বে। এমনটাই জানিয়েছেন বনকর্তা।

তিনি জানিয়েছেন ২৪ ঘণ্টা নজরদারি করা হচ্ছে। ক্যামেরাও বসানো হয়েছে। এক বনকর্তা জানিয়েছেন, জঙ্গলে বাঘের সংখ্য়া ক্রমশ বাড়ছে। কিন্তু তাদের থাকার জায়গা নেই। এবার তাদের অন্য অভায়রণ্যে পাঠানোর ব্যাপারে ভাবা হচ্ছে। 

বন্ধ করুন