বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'কয়েক মিনিটের টার্বুলেন্স মনে হচ্ছিল অনন্তকাল চলছে', এখনও আতঙ্কে ভিস্তারার যাত্রীরা
'কয়েক মিনিটের টার্বুলেন্স মনে হচ্ছিল অনন্তকাল চলছে', এখনও আতঙ্কে ভিস্তারার যাত্রীরা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
'কয়েক মিনিটের টার্বুলেন্স মনে হচ্ছিল অনন্তকাল চলছে', এখনও আতঙ্কে ভিস্তারার যাত্রীরা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

'কয়েক মিনিটের টার্বুলেন্স মনে হচ্ছিল অনন্তকাল চলছে', এখনও আতঙ্কে ভিস্তারার যাত্রীরা

  • এখনও আতঙ্কিত যাত্রীরা।

টার্বুলেন্স চলেছিল মাত্র কয়েক মিনিট। কিন্তু সেটাই যেন অনন্তকাল মনে হচ্ছিল। মুম্বই থেকে কলকাতাগামী ভিস্তারা উড়ানের ভয়ানক অভিজ্ঞতার কথা জানাতে গিয়ে এমনটাই বলছিলেন যাত্রী শুভা দাস। ঘাড়ে আঘাত পেয়েছেন তিনি। তাঁর বাবারও শিরদাঁড়ায় চোট লেগেছে। 

একই অভিজ্ঞতা ভিস্তারা উড়ানের একাধিক যাত্রীর। ভবিষ্যতে বিমানযাত্রা করার আগে যে এই দিনটার কথা বারবার মনে পড়বে, একবাক্যে স্বীকার করে নিলেন তাঁরা।

সোমবার বিকেলে মুম্বই থেকে কলকাতাগামী ভিস্তারার উড়ান UK775 অবতরণের কিছুক্ষণ আগে মাঝ আকাশে এয়ার টার্বুলেন্সের মধ্যে পড়ে। অবতরণের প্রস্তুতি চলাকালীন ২০ হাজার ফুট উচ্চতা থেকে ১৭ হাজার ফুটে নামার সময় বিমানটি জোরে কাঁপতে শুরু করে। এর জেরে যাত্রীদের মধ্যে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়ায়। প্রবল ঝাঁকুনিতে বেশ কয়েকজন যাত্রী আহত হন।

সোমবার দুপুর ২.০৫ মিনিটে মুম্বই থেকে ওড়ে ভিস্তারার বিমানটি। কলকাতায় অবতরণ করে বিকেল ৪.২৫ মিনিটে। বিমানসংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, অবতরণের মিনিট ১৫ আগে বায়ুচাপের তারতম্যের জন্য ব্যাপক ঝটকার মুখে পড়ে বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি। ভয়ানক টার্বুলেন্সের মধ্যে পড়তেই এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলকে পরিস্থিতির কথা জানান বিমানচালক। এরপরেই বিমানটির জরুরি অবতরণের ব্যবস্থা করে কলকাতা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

সূত্রের খবর, আঘাত গুরুতর হওয়ায় অন্তত ৩ জন যাত্রীকে বাইপাসের ধারে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের একজনকে সুশ্রষার পর ছেড়ে দেওয়া হয়। বাকিদের বিমানবন্দরেই প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়।

ডিজিসিএ জানিয়েছে, ৬১ বছর বয়সী এক মহিলা যাত্রীর ডান হাত ভেঙেছে। তাঁকে মিন্টো পার্কের কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আরেকজনের শিরদাড়ায় চোট লেগেছে। বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি চিকিত্সাধীন।

সোমবার বিকেলে দক্ষিণবঙ্গের আকাশে তৈরি হয়েছিল প্রবল বজ্রগর্ভ মেঘ। যার জেরে ব্যাপক বৃষ্টি হয়েছে প্রায় সর্বত্র। সঙ্গে চলে তুমুল বজ্রপাত।  উড়ান বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বর্ষায় ভারতের আকাশে বায়ুচাপের তারতম্যজনিত কারণে ঝটকা অনুভব করা কোনও বিরল ঘটনা নয়। সেজন্যই বিমানযাত্রীদের বিমান আকাশে থাকাকালীন সব সময় সিটবেল্ট পরে থাকতে অনুরোধ করা হয়। কিন্তু এয়ার টার্বুলেন্সের ফলে এতজন যাত্রীর আহত হওয়ার ঘটনা সচরাচর ঘটে না, মত অভিজ্ঞ বিমানচালকদের। প্রসঙ্গত, গত রবিবারও এলোমেলো হাওয়ার জন্য কলকাতাগামী একটি বিমান রাঁচিতে অবতরণ করে।

বন্ধ করুন