বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'প্রেমিকার' কাছে যাওয়ার 'অপরাধ', 'প্রেমিক' ছাগলকে পিটিয়ে খুন
'প্রেমিকার' কাছে যাওয়ার 'অপরাধ', 'প্রেমিক' ছাগলকে পিটিয়ে খুন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
'প্রেমিকার' কাছে যাওয়ার 'অপরাধ', 'প্রেমিক' ছাগলকে পিটিয়ে খুন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

'প্রেমিকার' কাছে যাওয়ার 'অপরাধ', 'প্রেমিক' ছাগলকে পিটিয়ে খুন

  • রাধার দাবি, পশুহ্ত্যার মতো পাশবিক ঘটনার অপরাধে সিপুর কঠোর শাস্তি হোক।

মহিলা সঙ্গীর কাছে গিয়েছিল পুরুষ ছাগল। সেজন্য পুরুষ ছাগলকে পিটিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল বিহারের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। পোষ্য ছাগীর কাছ যাওয়ার অপরাধে একটি পুরুষ ছাগলকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ উঠল ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

বিহারের কাইমুর চৌরাসিয়া গ্রামের বাসিন্দা রাধা দেবীর অভিযোগ, তাঁর পোষা ছাগলটি প্রতিবেশি সিপু রামের বাড়ি ঢুকেছিল। সিপুর একটি পোষ্য ছাগী রয়েছে। ছাগীর কাছে তাঁর এই ছাগলটি যাওয়ায় সিপু রেগে যান ও তাঁর পোষা ছাগলটিকে মারধর করেন। একইসঙ্গে তিনি জানান, ‘‌ঘটনার খবর পেয়ে আমি যখন সিপুর বাড়ি যাই, তখন দেখি আমার ছাগলটি উঠানে পড়ে আছে। পিটিয়ে মারার প্রতিবাদ করায় সিপু আমাকেও ভয় দেখিয়েছে।’‌ গোটা ঘটনাটি জানার পর গ্রামেরই এক বাসিন্দা রাধাকে পুলিশে অভিযোগ জানানোর পরামর্শ দেন। সেইমতো রাধা মেহনিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। রাধার দাবি, পশুহ্ত্যার মতো পাশবিক ঘটনার অপরাধে সিপুর কঠোর শাস্তি হোক।

এই প্রসঙ্গে মেহনিয়া থানার এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, অভিযোগকারী রাধা দেবী তাঁর মৃত পুরুষ ছাগলকে নিয়ে এসেছিলেন। তাঁর ওই পুরুষ ছাগলটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। দেহটিকে পশু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত করা হবে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। দু'তিন দিনের মধ্যে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট চলে আসবে বলে হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে।

বন্ধ করুন