বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছিল বর্ধমানের কিশোর? সন্ধান মিলল হরিয়ানায়,এই সব করতে হত তাকে
বর্ধমানের রায়না থেকে নিখোঁজ কিশোরের সন্ধান মিলল হরিয়ানায় প্রতীকী ছবি: গেটি ইমেজেস। (MINT_PRINT)

লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছিল বর্ধমানের কিশোর? সন্ধান মিলল হরিয়ানায়,এই সব করতে হত তাকে

  • ওই খামার মালিক ঠিক কার কাছ থেকে ওই কিশোরকে কিনেছিল সেটাও পুলিশ খতিয়ে দেখছে। জামালপুর থানা গোটা ঘটনায় মাদ্রাসার ভূমিকাও খতিয়ে দেখছে। কেন রেজিস্টারে তার নাম ছিল না সেই প্রশ্নও উঠছে।

তিন মাস আগে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিল বর্ধমানের রায়নার বাসিন্দা এক কিশোর। এরপর চারদিকে খোঁজ খোঁজ। বর্ধমানের জামালপুরের মাধবপুর এলাকায় একটি অখ্যাত মাদ্রাসায় পড়ত সে। সেখান থেকেই সে নিখোঁজ হয়ে যায়। এদিকে কিশোরের পরিবারের দাবি, সেই সময় পুলিশের কাছে বার বার অভিযোগ জানানোর জন্য তারা গিয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ নানা অজুহাতে তাদের সরিয়ে দেয়। 

এদিকে দীর্ঘদিন ধরে সন্তানের খোঁজ না পেয়ে গত ২২ মে এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার দ্বারস্থ হয়েছিলেন ওই কিশোরের বাবা। এরপর সোর্স মারফৎ তারা বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি শুরু করে। শেষ পর্যন্ত একটি ফোন কলের সূত্র পায় ওই সংস্থা। এরপর রাজ্য পুলিশ ও দিল্লি পুলিশের সহযোগিতায় তারা ওই কিশোরের সন্ধান পায়। হরিয়ানার একটি কৃষি খামারে তাকে উদয়অস্ত পরিশ্রম করতে হত। অভিযোগ এক লক্ষ টাকায় ওই কিশোরকে কিনেছিল খামার মালিক। এরপর তাকে দিয়ে বেগাড় খাটানো হত বলে অভিযোগ। 

অন্যদিকে তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে ওই কিশোর মাদ্রাসাতে পড়লেও তার নাম রেজিস্টারে ছিল না। সেক্ষেত্রে দায় এড়ানোর চেষ্টা করছে তারা। তবে পুলিশ ইতিমধ্যে গোটা ব্যবস্থাটি খতিয়ে দেখছে। ওই খামার মালিক ঠিক কার কাছ থেকে ওই কিশোরকে কিনেছিল সেটাও পুলিশ খতিয়ে দেখছে। জামালপুর থানা গোটা ঘটনায় মাদ্রাসার ভূমিকাও খতিয়ে দেখছে। কেন রেজিস্টারে তার নাম ছিল না সেই প্রশ্নও উঠছে। 

বন্ধ করুন