অশান্ত দিল্লিতে শান্তি বজায় রাখতে বহাল হয়েছে আধা সামরিক বাহিনী। বুধবার। ছবি সৌজন্যে এপি। (AP)
অশান্ত দিল্লিতে শান্তি বজায় রাখতে বহাল হয়েছে আধা সামরিক বাহিনী। বুধবার। ছবি সৌজন্যে এপি। (AP)

বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক স্লোগানের অভিযোগ, অস্বীকার নেতার

লক্ষ্মী নগরে প্রায় দেড়শো সমর্থককে নিয়ে প্ররোচনামূলক স্লোগান দিতে দিতে টহল দেন বিজেপি বিধায়ক, এমনই অভিযোগ করেছেন আম আদমি পার্টির রাজ্য সভার সাংসদ সঞ্জয় সিং।

হিংসায় উত্তাল দিল্লিতে উস্কানিমূলক স্লোগান দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিজেপি বিধায়ক অভয় ভার্মার বিরুদ্ধে। ভিডিয়ো ক্লিপিংয়ে প্রমাণ থাকলেও অভিযোগ অস্বীকার করলেন বিধায়ক।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিজের বিধানসভা কেন্দ্র লক্ষ্মী নগরে প্রায় দেড়শো সমর্থককে নিয়ে প্ররোচনামূলক স্লোগান দিতে দিতে টহল দেন বিজেপি বিধায়ক, এমনই অভিযোগ করেছেন আম আদমি পার্টির রাজ্য সভার সাংসদ সঞ্জয় সিং।

তিনি জানিয়েছেন, ‘সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ ওঁকে মঙ্গল বাজার থেকে বেরিয়ে বিকাশ মার্গের দিকে যেতেো দেখেছি। ওঁর সঙ্গে থাকা লাঠিধারী সমর্থকদের নিয়ে তিনি উস্কানিমূলক স্লোগান দিচ্ছিলেন। যে সমস্ত দোকানদার সন্ধ্যায় দোকান খুলেছিলেন, তাঁরা আতঙ্কে ঝটপট শাটার বন্ধ করে পালাতে থাকেন। ওঁরা স্লোগান দিতে দিতে বিদায় নেওয়ার পরে স্থানীয় থানার ওসি ঘটনাস্থলে পৌঁছন।’

স্থানীয় দোকানীরা বিজেপি নেতা ও সমর্থকদের ওই দিন সন্ধ্যায় মঙ্গল বাজার এলাকায় ঘুরতে দেখেছেন বলে জানিয়েছেন। অসমর্থিত ভিডিয়ো ক্লিপিংয়ে দেখা গিয়েছে, ভার্মার নেতৃত্বে একদল বিজেপি সমর্থক ‘গোলি মারো’ স্লোগান দিচ্ছেন।

এই বিষয়ে জানতে চেয়ে যোগাযোগ করা হলে ভার্মা জানান, তিনি সন্ধ্যায় ওই এলাকায় গিয়েছিলেন। তবে এই ধরনের স্লোগান তিনি দেননি বলে জানিয়েছেন বিজেপি বিধায়ক। তাঁর দাবি, ‘এলাকার দোকানদার ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতহ্ক ছড়িয়ে পড়েছিল। লক্ষ্ণী নগরে বেশিরভাগ দোকানই বন্ধ ছিল। আমি ওঁদের আতঙ্ক দূর করে ফের দোকান খোলাতে গিয়েছিলাম।’

অন্য দিকে দিল্লির বিজেপি সভাপতি মনোজ তিওয়ারি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, 'দিল্লিতে শান্তি স্থাপন করার জন্য বিজেপির সব নেতাকে সব রকম চেষ্টা করতে আবেদন জানিয়েছি। কোনও নেতার এমন কোনও পদক্ষেপ করা উচিত নয় যাতে বিভ্রান্তি ও ভুল বার্তা ছড়ায়। কিছু কিছু মানুষ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হিংসায় মদত দিতে উল্কানিমূলক ভাষণ ও স্লোগান দিয়ে বেড়াচ্ছে। চেষ্টা করা হচ্ছে, দিল্লির শান্তি, সৌভ্রাতৃত্ব ও ভাবমূর্তি নষ্ট করার।'

উল্লেখ্য, বিজেপির দিল্লি শাখায় সহ-সভাপতি পদে আসীন অভয় ভার্মা গত বিধানসভা নির্বাচনে আপ প্রার্থী নীতিন ত্যাগীকে অত্যন্ত কম সংখ্যক ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেন।

বন্ধ করুন