বাড়ি > ঘরে বাইরে > ‘বিউটি অ্যান্ড বিস্ট’ রাফালে যেন পাখির ধাক্কা না লাগে, পদক্ষেপ প্রশাসনের
আম্বালা বায়ুঘাঁটিতে রাফাল যুদ্ধবিমান (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
আম্বালা বায়ুঘাঁটিতে রাফাল যুদ্ধবিমান (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

‘বিউটি অ্যান্ড বিস্ট’ রাফালে যেন পাখির ধাক্কা না লাগে, পদক্ষেপ প্রশাসনের

  • গত বছর জুনের শেষের দিকে আম্বালা বায়ুঘাঁটি থেকে ওড়ার সঙ্গে সঙ্গে একঝাঁক পাখির সঙ্গে ধাক্কা লেগেছিল একটি জাগুয়ার বিমানের। বিকল হয়ে গিয়েছিল একটি ইঞ্জিন।

আজ (বৃহস্পতিবার) আনুষ্ঠানিকভাবে আম্বালা বায়ুঘাঁটিতে ভারতীয় বায়ুসেনায় অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে পাঁচটি রাফাল যুদ্ধবিমান। কিন্তু তার আগে সবথেকে বড় মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বায়ুঘাঁটির কাছে পাখিদের আনাগোনা। সেজন্য বায়ুঘাঁটির আশপাশের এলাকায় আবর্জনা কমানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় পুরসভার তরফে জেলা প্রশাসনকে লেখা চিঠিতে জানানো হয়েছে, আবর্জনার জেরে বায়ুঘাঁটি লাগোয়া ১০ কিলোমিটার চত্বরে ‘পাখির আনাগোনা বেশি’ থাকে। যা ‘বিমানের মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে।’

গত বছর জুনের শেষের দিকে আম্বালা বায়ুঘাঁটি থেকে ওড়ার সঙ্গে সঙ্গে একঝাঁক পাখির সঙ্গে ধাক্কা লেগেছিল একটি জাগুয়ার বিমানের। বিকল হয়ে গিয়েছিল একটি ইঞ্জিন। পাইলটের তৎপরতায় কোনও হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও রীতিমতো শঙ্কিত হয়ে পড়েছিল বায়ুসেনা। সেজন্য ‘বিউটি অ্যান্ড বিস্ট’ রাফালের ক্ষেত্রে কোনওরকম ঝুঁকি নিতে নারাজ বায়ুসেনা কর্তৃপক্ষ। জোর দেওয়া হচ্ছে আম্বালা বায়ুঘাঁটি চত্বরে পাখির আনাগোনা কমানোর উপর। 

বিষয়টি নিয়ে হরিয়ানার মুখ্যসচিব কেশনী আনন্দ অরোরাকে চিঠিও লিখেছেন ভারতীয় বায়ুসেনার ডিরেক্টর জেনারেল (নজরদারি ও সুরক্ষা)। পাখিদের তাড়াতে বায়ুঘাঁটির কাছে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য প্রশাসনকে সহায়তার আর্জিও জানান। চিঠিতে জানানো হয়েছে, ‘যুদ্ধবিমানকে রক্ষা করতে’ বায়ুসেনা আধিকারিক এবং পুরসভার প্রতিনিধিদের মধ্যে একাধিক বৈঠক হয়েছে। ‘আম্বালা বায়ুঘাঁটির ১০ কিলোমিটার ব্যাসার্ধে চিল-সহ বড় পাখির গতিবিধি কমানোর জন্য প্রশাসনকে কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা প্রকল্প চালু’ করতে হবে।

এদিকে সকাল ১০ টায় বায়ুসেনার ১৭ নম্বর স্কোয়াড্রনে (যা গোল্ডেন অ্যারোজ বা সোনার তির নামে পরিচিত) আনুষ্ঠানিকভাবে অন্তর্ভুক্ত হবে রাফাল। আম্বালার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং ফ্রান্সের সশস্ত্র বাহিনীর মন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্লে। অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সকাল ন'টার পর দিল্লিতে পৌঁছে যান ফ্রান্সের সশস্ত্র বাহিনীর মন্ত্রী। ইতিমধ্যে তাঁর সঙ্গে আম্বালার উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন রাজনাথ। অনুষ্ঠানে হাজির থাকবেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত, বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদোরিয়া, প্রতিরক্ষা সচিব অজয় সচিব-সহ আরও অনেকে। প্রথামাফিক 'সর্বধর্ম পুজো'-র মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে রাফাল সামনে আনা হবে। একটি বায়ু প্রদর্শনীতেও অংশগ্রহণ করবে রাফাল ও জেতাস। তারপর ভারতীয় বায়ুসেনার নয়া যুদ্ধবিমানকে জলকামানের মাধ্যমে স্যালুট জানানো হবে।

বন্ধ করুন