বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > রামদেবের দাবি মতো করোনিল কি WHO-এর ছাড়পত্র পেয়েছে?
নয়াদিল্লি করোনিল নিয়ে রামদেব। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
নয়াদিল্লি করোনিল নিয়ে রামদেব। (ছবি সৌজন্য এএনআই)

রামদেবের দাবি মতো করোনিল কি WHO-এর ছাড়পত্র পেয়েছে?

  • রামদেব দাবি করেছিলেন, 'বৈজ্ঞানিক প্রমাণ-সহ ১৫০ টির বেশি দেশে করোনিল বিক্রি করার সুযোগ আছে আমাদের কাছে।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) নাকি পতঞ্জলির করোনিলকে অনুমোদন দিয়েছে। রামদেবের সেই দাবির পর বিশ্বের স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক সংস্থার তরফে জানানো হল, করোনাভাইরাসের চিকিৎসার জন্য কোনও চিরাচরিত ওষুধের পর্যালোচনা করা বা অনুমোদন দেওয়া হয়নি। 

শুক্রবার একটি টুইটবার্তায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে বলা হয়, ‘কোভিড ১৯-এর চিকিৎসার জন্য হু চিরাচরিত কোনও ওষুধের কার্যকারিতা পর্যালোচনা করেনি বা অনুমোদন দেয়নি।’ কোনও নাম করা না হলেও রামদেবের দাবির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সেই টুইট করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। 

সংবাদসংস্থা এএনআইকে রামদেব বলেছিলেন, ‘যাবতীয় বৈজ্ঞানিক গবেষণার প্রমাণ পূরণের পর সবুজ সংকেত দিয়েছে কেন্দ্র। যা আন্তর্জাতিক মাপকাঠির ভিত্তিতে করা হয়েছে। দেশ, বিশ্ব একমত হয়েছে এবং হু পর্যন্ত মেনে নিয়েছে। এখন বৈজ্ঞানিক প্রমাণ-সহ ১৫০ টির বেশি দেশে করোনিল বিক্রি করার সুযোগ আছে আমাদের কাছে।’

হরিদ্বারের পতঞ্জলি আয়ুর্বেদের তরফে জানানো হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন প্রকল্পের ভিত্তিতে আয়ুষ মন্ত্রকের ছাড়পত্র পেয়েছে করোনিল। একইসঙ্গে দাবি করা হয়, করোনিল হল প্রথম প্রমাণ-ভিত্তিক ওষুধ। যা করোনাভাইরাসের মোকাবিলা করবে। আয়ুষ মন্ত্রকের তরফে অবশ্য করোনিলকে কোভিড-১৯-এর রোগের বিরুদ্ধে সাহায্যকারী উপায় হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছিল।

বন্ধ করুন