স্টেশনে প্রতিবাদীরা।
স্টেশনে প্রতিবাদীরা।

রাস্তার পর মেট্রো! এবার দিল্লির জাফরাবাদ স্টেশনে ধর্নায় বসল CAA বিরোধীরা

ওই স্টেশনে ট্রেন থামবে না, জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

প্রায় দুই মাসের ওপর দিল্লির শাহিন বাগে রাস্তা আটকে প্রতিবাদ করছে সিএএ বিরোধীরা। তাতে অবশ্য সরকারের টনক নড়েনি। এবার চাপ বাড়াতে দিল্লির জাফরাবাদ মেট্রো স্টেশন দখল করল প্রতিবাদীরা। ফলে রবিবার সকালে ওই স্টেশনে মেট্রো পরিষেবা বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে কর্তৃপক্ষ।

শনিবার রাত থেকেই ওই চত্বরে ভিড় জমাতে শুরু করেন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধীরা। ওখানে রাস্তা বন্ধ করে দেন তারা, এবং তারপর মেট্রো স্টেশনে ঢুকে পড়েন। প্রায় ৫০০ জন মহিলা বর্তমানে প্রতিবাদ করছেন। সিএএ না প্রত্যাহার করা অবধি এই আন্দোলন চলবে বলে তাঁদের দাবি। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত রক্ষী মোতায়েন করেছে দিল্লি পুলিশ। চোখে পড়ার মতো উপস্থিতি মহিলা পুলিশদের। জাফরবাদ স্টেশনে কোনও ট্রেন থামবে না বলে জানিয়েছে দিল্লি মেট্রো।

হাতে তেরঙা ও মুখে আজাদির বাণী, ঘন ঘন জয় ভিম ও ইনকিলাব জিন্দাবাদ স্লোগানে মুখরিত মেট্রো স্টেশন। সীলমপুর থেকে মৌজপুর ও যমুনাবিহারে যাওয়ার রাস্তা আটকে দিয়েছেন প্রতিবাদকারীরা। শাহিন বাগে প্রতিবাদীদের ওঠাতে ব্যর্থ হয়েছে দিল্লি পুলিশ। বর্তমানে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে মধ্যস্থতাকারীরা কথা বলছে প্রতিবাদীদের সঙ্গে কীভাবে মানুষের অসুবিধা না করে বিক্ষোভ করা যায় সেই নিয়ে। তারমধ্যে আস্ত একটি মেট্রো স্টেশনকে আটকে শুরু হল বিক্ষোভের নয়া পর্ব।

প্রধানমন্ত্রী মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ যদিও সাফ বলেছেন যে যতই বিক্ষোভ হোক, সিএএ প্রত্যাহার করা হবে না। তবে এনআরসি করার সরকারের আপাতত কোনও পরিকল্পনা নেই, চাপের মুখে সেটা বলেছেন তাঁরা।



বন্ধ করুন