আফজল গুরু
আফজল গুরু

দেবিন্দর আমাকে ফাঁসিয়েছে- গ্রেফতার হওয়া পুলিশ কর্তা সম্বন্ধে লিখেছিল আফজল গুরু

নিজের উকিলকে লেখা চিঠিতে এই দাবি করেছিল আফজল।

পার্লামেন্টে আক্রমণ করার পরিকল্পনা করার জন্য ফাঁসি হয়েছিল আফজল গুরুর। কিন্তু শেষ অবধি আফজল বলে গিয়েছিল যে এক পুলিশ অফিসারের কথাতেই সে এক সন্ত্রাসবাদীকে সাহায্য করেছিলেন। সেই সময় তাঁর কথা কল্কে পায়নি। কিন্তু শনিবার হিজবুল জঙ্গিদের সঙ্গে শোপিয়ানে গ্রেফতার হয়েছেন সেই পুলিশ কর্তা, যাঁর কথা বারবার বলত আফজল। ডিএসপি দেবিন্দর সিংকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আইজি জানিয়েছেন যে সাধারণ সন্ত্রাসবাদী হিসাবেই গণ্য করা হবে দেবিন্দরকে। সেই প্রসঙ্গেই এখন নতুন করে উঠে আসছে দেবিন্দরের সম্বন্ধে সন্ত্রাসবাদী আজফলের দাবি।

নিজের উকিল সুশীল কুমারকে আফজল লিখেছিল যে স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের কথায় সে জঙ্গি মহম্মদকে সাহায্য করেছিল। এখানে বিশেষ উল্লেখ আছে দেবিন্দরের। তাঁর কথাতেই মহম্মদকে দিল্লিতে নিয়ে যায় আফজল বলে চিঠিতে লেখা ছিল।

পার্লামেন্ট আক্রমণে যে পাঁচ জঙ্গি মারা যায়, তার মধ্যে একজন মহম্মদ। শেষ অবধি মহম্মদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ ছিল আফজলের। সেই ফোনও পুলিশ তাকে দিয়েছিল, বলে জানিয়েছিল আফজল। যদিও সেই দাবি আদালতে ধোপে টেকেনি।

আফজলের দাবি ছিল যে সব জঙ্গিরা আত্মসমর্পণ করেছে, তাদের নানান ভাবে অত্যাচার করত এসটিএফ। বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করত। আফজলও পাকিস্তানে গিয়ে জঙ্গি হতে চেয়েছিল। পরে ফিরে আসে। কিন্তু তারপরেই পুলিশের জালে সে পড়ে যায় বলে দাবি করেছিল আফজল। তার দাবি ছিল যে নিরুপায় হয়ে সে মহম্মদকে অ্যাম্বাসাডার গাড়ি কিনতে সাহায্য করেছিল। গাড়ি কেনার পর মহম্মদ তাকে কাশ্মীরে ফিরে যেতে বলেছিল। কিন্তু তার আগেই শ্রীনগরে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে আফজল।

এই প্রসঙ্গে আফজলের উকিল সুশীল কুমার বলেছেন যে তাঁর যতটা মনে পড়ছে আফজল এসটিএফের সঙ্গে কাজ করছিল। এই মামলায় তাকে ফাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলেই সুশীল কুমারের দাবি। আফজলের এই চিঠি সুপ্রিম কোর্টে পেশ করেছিলেন তার উকিল রাম জেঠমালানি, এনডি পঞ্চোলি ও সুশীল কুমার। এই পুরো ঘটনাটি লেখা রয়েছে বিস্তারিত ভাবে অরুদ্ধতী রায়ের The Hanging of Afzal Guru and the strange case of the attack on Indian Parliament বইয়ে।

বন্ধ করুন