বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Agni Prime ballistic missile test: বুক কাঁপবে শত্রুদের! ময়দানে নামার আগে রাতের পরীক্ষায় সফল মিসাইল অগ্নি প্রাইম

Agni Prime ballistic missile test: বুক কাঁপবে শত্রুদের! ময়দানে নামার আগে রাতের পরীক্ষায় সফল মিসাইল অগ্নি প্রাইম

‘অগ্নি প্রাইম’-র পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ। (ছবি সৌজন্যে এএনআই)।

প্রাথমিক পর্যায়ে তিনবার অগ্নি প্রাইমের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণে সাফল্য মিলেছে। বুধবার প্রথমবারের জন্য নৈশকালীন উৎক্ষেপণ করা হয়। যে ক্ষেপণাস্ত্র শীঘ্রই সামরিক বাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে।

আনুষ্ঠানিকভাবে সামরিক বাহিনীতে অন্তর্ভুক্তির আগে প্রথম নৈশকালীন 'পরীক্ষা'-য় সাফল্য লাভ করল 'অগ্নি প্রাইম'। ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (ডিআরডিও) তরফে জানানো হয়েছে, বুধবার সন্ধ্যা সাতটা ৩০ মিনিট নাগাদ ওড়িশা উপকূলের ডক্টর এপিজে আবদুল কালাম দ্বীপ থেকে নয়া প্রজন্মের ব্যালিস্টিক মিসাইল অগ্নি প্রাইমের সফল উৎক্ষেপণ হয়। সেই পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণে যাবতীয় মাপকাঠি পূরণ হয়েছে বলে ডিআরডিওয়ের তরফে জানানো হয়েছে।

প্রাথমিক পর্যায়ে তিনবার অগ্নি প্রাইমের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণে সাফল্য মিলেছে। বুধবার প্রথমবারের জন্য নৈশকালীন উৎক্ষেপণ করা হয়। যে ক্ষেপণাস্ত্র শীঘ্রই সামরিক বাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে। ডিআরডিওয়ের তরফে জানানো হয়েছে, অগ্নি প্রাইমের প্রথম নৈশকালীন উৎক্ষেপণে সবকিছু নিখুঁতভাবে হয়েছে। সেই নয়া প্রজন্মের ব্যালিস্টিক মিসাইলের যাবতীয় সিস্টেমও ঠিকভাবে কাজ করেছে। ক্ষেপণাস্ত্র কোন পথে এগিয়ে যাচ্ছে, তার উপর নজর রাখতে বিভিন্ন স্থানে র‍্যাডার, টেলিমেট্রি এবং ইলেকট্রো অপটিক্যাল ট্র্যাকিং সিস্টেম মোতায়েন করা হয়েছিল। ছিল দুটি জাহাজও।

আরও পড়ুন: Agni 1: সফল পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ অগ্নি-১ ব্যালাস্টিক মিসাইলের, ক্ষমতা রাখে টার্গেটে নিখুঁতভাবে আছড়ে পড়ার

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, নয়া প্রজন্মের ব্যালিস্টিক মিসাইল অগ্নি প্রাইমের প্রথম নৈশকালীন উৎক্ষেপণের সাক্ষী থাকতে ডিআরডিওয়ের শীর্ষ আধিকারিক এবং সামরিক বাহিনীর শীর্ষকর্তারা হাজির ছিলেন। যে সফল উৎক্ষেপণের ফলে ভারতের সামরিক বাহিনীতে সেই অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র অন্তর্ভুক্তির পথ প্রশস্ত হয়েছে বলে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে।

অগ্নি প্রাইমের সেই সফল উৎক্ষেপণের জন্য ডিআরডিওয়ের বিজ্ঞানী-সহ সকলের প্রশংসা করেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট দফতরের সচিব এবং ডিআরডিওয়ের চেয়ারম্যান সমীর ভি কামাত। ডিআরডিও এবং সামরিক বাহিনীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংও। একেবারে নিখুঁত উৎক্ষেপণের জন্য ডিআরডিওয়ের বিজ্ঞানীদেরও প্রশংসা করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন: Brahmos Supersonic cruise missile: ছোট যুদ্ধবিমানে মিনি ব্রহ্মস আনবে বায়ুসেনা,নিখুঁত নিশানায় উড়িয়ে দেবে শত্রুঘাঁটি

তবে কোথায় সেই নয়া প্রজন্মের ব্যালিস্টিক মিসাইল অগ্নি প্রাইম মোতায়েন করা হবে, সে বিষয়ে সরকারের তরফে এখনও জানানো হয়নি। সংশ্লিষ্ট মহলের মতে, অত্য়াধুনিক অগ্নি প্রাইম ক্ষেপণাস্ত্রের ফলে ভারতের অস্ত্রভাণ্ডার আরও শক্তিশালী হয়ে উঠবে। একদিকে চিন, অপরদিকে যখন পাকিস্তান আছে, তখন সেই ক্ষেপণাস্ত্র অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

(এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup)

বন্ধ করুন