বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Gyanvapi Mosque: আরও একটি মসজিদ হারাতে চাই না, বাবরি স্মৃতি ফিরিয়ে কাশীর জ্ঞানবাপী নিয়ে উদ্বেগ ওয়াইসির
AIMIM প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি (ছবি - এএনআই) (HT_PRINT)
AIMIM প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি (ছবি - এএনআই) (HT_PRINT)

Gyanvapi Mosque: আরও একটি মসজিদ হারাতে চাই না, বাবরি স্মৃতি ফিরিয়ে কাশীর জ্ঞানবাপী নিয়ে উদ্বেগ ওয়াইসির

  • Owaisi on Gyanvapi Masjid: ওয়াইসি বলেন, 'এটি স্পষ্ট ভাবে আইনের লঙ্ঘন। আমি আশা করি অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড এবং মসজিদ কমিটি সুপ্রিম কোর্টে যাবে। আমি একটি বাবরি মসজিদ হারিয়েছি এবং আমি আরও একটি মসজিদ হারাতে চাই না।'

কাশীর জ্ঞানবাপী মসজিদ নিয়ে ক্রমেই বিতর্ক দানা বাঁধছে। এই আবহে এবার এই মসজিদ নিয়ে বারাণসীর আদালতের রায় নিয়ে তোপ দাগলেন। অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমীন (এআইএমআইএম) প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। হায়দরাবাদের সাংসদ ওয়াইসি বৃহস্পতিবার জ্ঞানবাপী মসজিদের রায়কে উপাসনা স্থান আইন ১৯৯১-এর 'স্পষ্ট লঙ্ঘন' বলে অভিহিত করেছেন। পেশায় আইনজীবী ওয়াইসির স্পষ্ট বক্তব্য, আইন অনুসারে, কোনও ব্যক্তি কোনও ধর্মীয় সম্প্রদায়ের উপাসনালয় বা তার কোনও অংশকে ভিন্ন ধর্মের উপাসনালয়ে রূপান্তর করতে পারবেন না। এই আবহে ওয়াইসির প্রশ্ন, তাহলে কেন এই সমীক্ষা করা হচ্ছে?

ওয়াইসির বলেন, আদালতের সিদ্ধান্ত (জ্ঞানবাপী মসজিদ মামলায়) বাবরি মসজিদ বিতর্ক মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায়ের লঙ্ঘন। ওয়াইসি জোর দিয়ে আরও বলেন যে তিনি বাবরি মসজিদের পরে আরও একটি মসজিদ হারাতে চান না। ওয়াইসি বলেন, 'এটি স্পষ্ট ভাবে আইনের লঙ্ঘন। আমি আশা করি অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড এবং মসজিদ কমিটি সুপ্রিম কোর্টে যাবে। আমি একটি বাবরি মসজিদ হারিয়েছি এবং আমি আরও একটি মসজিদ হারাতে চাই না।'

আরও পড়ুন: 'এভাবে উপত্যকায় ফিরবেন কাশ্মীরি পণ্ডিতরা?' ছেলের খুনের পর সরকারকে তোপ, ফুঁসছেন মৃত রাহুলের বাবা

এর আগে বৃহস্পতিবার বারাণসীর একটি আদালত নির্দেশ দেয় যাতে জ্ঞানবাপী মসজিদ সমীক্ষা শেষ করে সেই রিপোর্ট ১৭ মে-এর মধ্যে পেশ করা হয়। আদালত জেলা প্রশাসনকে অজুহাত দেখিয়ে সমীক্ষায় বিলম্ব না করার নির্দেশ দিয়েছে। এরপরই এই সমীক্ষা ঘিরে বিতর্ক আরও বেড়েছে। উল্লেখ্য, দিল্লির বাসিন্দা রাখি সিং, লক্ষ্মী দেবী, সীতা সাহু এবং অন্যান্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বারাণসী জেলা আদালতের নির্দেশে এই সমীক্ষা চালানো হচ্ছে।

এর আগে সমীক্ষা ও ভিডিয়োগ্রাফির সময় বারাণসীর জ্ঞানবাপী-শ্রীঙ্গার গৌরী কমপ্লেক্সের খুব কাছেই দুটি স্বস্তিকের চিহ্ন দেখা গিয়েছিল বলে দাবি করেছিলেন সমীক্ষার ভিডিয়োগ্রাফার। কোর্ট কমিশনারের দলের ভিডিয়োগ্রাফাররা বলেন যে তাঁরা সমীক্ষা চালনোর সময় মসজিদের বাইরে দুটি অবছা কিন্তু সুস্পষ্ট স্বস্তিক চিহ্ন দেখতে পান। তিনি বলেন যে স্বস্তিকগুলি সম্ভবত প্রাচীনকালে তৈরি হয়েছিল। এই আবহে উত্তেজনা ছড়ায়। পরে বিক্ষোভের মুখে সমীক্ষা স্থগিত রাখা হয়। এরপরই মুসলিম পক্ষ কমিশনারের অপসারণের দাবি জানায়। তবে আদালত কমিশনার বদলের আর্জি খারিজ করে। উল্টে দ্রুত সমীক্ষা সম্পন্ন করে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

বন্ধ করুন