বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Air India Flight diverted to Mumbai: গোলযোগের মুখে এয়ার ইন্ডিয়ার বোয়িং ৭৮৭, মুম্বইয়ে অবতরণ কোচিগামী বিমানের
গোলযোগের মুখে এয়ার ইন্ডিয়ার বোয়িং ৭৮৭, মুম্বইয়ে অবতরণ কোচিগামী বিমানের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে ব্লুমবার্গ)

Air India Flight diverted to Mumbai: গোলযোগের মুখে এয়ার ইন্ডিয়ার বোয়িং ৭৮৭, মুম্বইয়ে অবতরণ কোচিগামী বিমানের

  • Air India Flight diverted to Mumbai: বৃহস্পতিবার দুপুরে দুবাই থেকে উড়েছিল এয়ার ইন্ডিয়ার এআই৯৩৪ দুবাই-কোচি বিমানটি। কিন্তু বিমানের ভিতরে চাপ সংক্রান্ত সমস্যায় বিমানটি মুম্বইয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়। সন্ধ্যা ৭ টা ১০ মিনিট নাগাদ মুম্বই বিমানবন্দরে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানটি অবতরণ করে।

গোলযোগের জন্য ঘুরিয়ে দেওয়া হল এয়ার ইন্ডিয়ার দুবাই-কোচি বিমান। তা সুরক্ষিতভাবে মুম্বই বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে। তবে আপাতত বিমানটি বসিয়ে দিয়েছে ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ ইন্ডিয়া (ডিজিসিএ)। সেইসঙ্গে বিমানকর্মীদের ‘অফ-রোস্টার’ (সাময়িকভাবে ছুটি) করে দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে দুবাই থেকে উড়েছিল এয়ার ইন্ডিয়ার এআই৯৩৪ দুবাই-কোচি বিমানটি। কিন্তু বিমানের ভিতরে চাপ সংক্রান্ত সমস্যায় বিমানটি মুম্বইয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়। সন্ধ্যা ৭ টা ১০ মিনিট নাগাদ মুম্বই বিমানবন্দরে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানটি অবতরণ করে। মুম্বইয়ে এয়ার ইন্ডিয়া ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান কার্যালয় আছে।

বিষয়টি নিয়ে এয়ার ইন্ডিয়ার এক আধিকারিক জানিয়েছেন, বিমানে চাপ সংক্রান্ত সমস্যার কারণে মাঝ-আকাশে মাস্ক ব্যবহার করতে হয়। বিমানটি অবশ্য সুরক্ষিতভাবে অবতরণ করেছে। যাত্রীরাও সুরক্ষিত আছেন বলে দাবি করেছেন এয়ার ইন্ডিয়ার ওই আধিকারিক।

আরও পডৃ়ুন: Tightened rules for Airlines: ‘চেকআপ’ করবেন বিশেষ লাইসেন্সপ্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ার, তবেই উড়তে পারবে বিমান: DGCA

তারইমধ্যে পুরো বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিকভাবে তদন্তের জন্য দু'জন উচ্চপদস্থ আধিকারিককে নির্দেশ দিয়েছে ডিজিসিএ। ভারতের অসামরিক বিমান পরিবহণের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিরেক্টরেট জেনারেল অরুণ কুমার বলেছেন, 'তদন্তের স্বার্থে আমরা বিমানটি বসিয়ে দিয়েছি এবং বিমানকর্মীদের বসিয়ে দিয়েছি।'

গত ১৫ জুন থেকে বিমানের কমপক্ষে ১৫ টি যান্ত্রিক গোলযোগের খবর সামনে এসেছে। সেই পরিস্থিতিতে চলতি সপ্তাহের শুরুতে ডিজিসিএ জানিয়েছে, উড়ানের আগে প্রতিটি বিমানের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করবেন নির্দিষ্ট মাপকাঠির লাইসেন্স থাকা কর্মীরা। তাঁদের ছাড়পত্র পেলে তবেই উড়তে পারবে কোনও বিমান।

সোমবার ডিজিসিএয়ের তরফে জানানো হয়েছে, শুধুমাত্র এ১/এ২ ক্যাটেগরির লাইসেন্স থাকা বিমান রক্ষণাবেক্ষণকারী ইঞ্জিনিয়ারের ছাড়পত্র পাওয়ার পরই কোনও বিমান উড়তে পারে। অর্থাৎ উড়ানের আগে প্রতিটি বিমানকে ছাড়পত্র দেবেন এ১/এ২ ক্যাটেগরির লাইসেন্স থাকা বিমান রক্ষণাবেক্ষণকারী ইঞ্জিনিয়ার। তাঁর সবুজ সংকেত ছাড়া কোনও বিমান যাত্রা শুরু করতে পারবে না।

আরও পডৃ়ুন: Flight Problems: উড়ান বিপত্তি কাটছে না! অবতরণের পর ইঞ্জিন বিকল ভিসতারার বিমানের, ধোঁয়া ইন্ডিগোয়

ডিজিসিএ স্পষ্টভাবে জানিয়েছে, বিভিন্ন সংস্থা 'এ' ক্যাটেগরির লাইসেন্সপ্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ারদের দিয়ে যে কাজ চালাচ্ছে, সেই বিষয়টি সামনে এসেছে। যা বিমান পরিবহণের নিয়ম লঙ্ঘন করছে। শীঘ্রই উড়ান সংস্থাগুলিকে বিমানবন্দরে উপযুক্ত লাইসেন্সপ্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ারদের পাঠাতে হবে। যে নির্দেশিকা আগামী ২৮ জুলাইয়ের মেনে চলতে হবে বলে জানানো হয়েছে।

বন্ধ করুন