ফাইল ছবি  (Bloomberg)
ফাইল ছবি (Bloomberg)

Covid-19: টুইটারে করোনা সচেতনতায় মজার খেলায় মাতল বিমানসংস্থারা

একে অপরের স্লোগান নিয়ে চলল খেলা।

করোনার জেরে আপাতত ১৪ তারিখ অবধি চলছে না কোনও যাত্রিবাহী বিমান।তারপরেও বিমান পরিষেবা স্বাভাবিক হবে, এমন কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই চলে। এমনিতেই ধুঁকছে বিমান ব্যবসা। তার ওপর এই লকডাউন যে আরও ক্ষতি হচ্ছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।কিন্তু সেসব ভুলে টুইটারে খুনসুটিতে মাতল বিমানসংস্থাগুলি। প্রত্যেকটি টুইটার হ্যান্ডেল তাদের কোনও এক প্রতিপক্ষের স্লোগান ব্যবহার করে করোনায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার গুরুত্ব নিয়ে বার্তা দেয়।

প্রথমে ইন্ডিগো টুইট করে-

ফ্লাইং হাই হচ্ছে ভিস্তারার ব্যবহৃত স্লোগান।

এরপর ভিস্তারার পালা-

বাড়িতে থাকাই বুদ্ধিমানের কাজ বলে তারা।সেই কথার রেশ ধরে গো-এয়ারের টুইটার হ্যান্ডেল বলে-


এই মুহূর্তে সবাই উড়তে না পারলেও খুব দ্রুত পরিস্থিতি বদল হবে বলে আশা প্রকাশ করে তারা।এরপর ট্যাগ করে দেয় এয়ার এশিয়াকে।

এয়ার এশিয়া বলে যে বাড়িতে থাকাই এখন সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ

সেই টুইটের সূত্র ধরে স্পাইসজেটের সরস জবাব-

আগামীর জন্য আজকে পাখিকে বাড়ি থাকতে হচ্ছে,স্পাইসজেটের এই টুইটের জবাব দেয় দিল্লি এয়ারপোর্ট টুইটার হ্যান্ডেল।


সকল বিমানসংস্থার টুইটার হ্যান্ডেলকে ট্যাগ করে দিল্লি এয়ারপোর্ট বলে যে খুব দ্রুতই ফের আকাশে উড়বে বিমান। ক্ষণিকের বিরতি করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য।কিন্তু তার মধ্যেও সকলকে একটু হাসানোর জন্য ধন্যবাদ জানায় তারা।

কিছু নেটিজেন যদিও প্রশ্ন করে যে এয়ার ইন্ডিয়া যারা করোনায় মানুষকে ঘরে ফেরাতে এতটা উদ্যোগী হয়েছে, তাদের কেন একটু প্রশংসা করা হল না এই উদ্যোগের মধ্যে।



বন্ধ করুন