বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রশান্ত–অভিষেকের নেতৃত্বে হাইভোল্টেজ বৈঠক, নয়াদিল্লির বাসভবনে উপস্থিত সাংসদরা
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

প্রশান্ত–অভিষেকের নেতৃত্বে হাইভোল্টেজ বৈঠক, নয়াদিল্লির বাসভবনে উপস্থিত সাংসদরা

  • তবে আজ, বৃহস্পতিবার সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়ের দিল্লির বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজের মধ্য দিয়েই ‘মিশন দিল্লির’ পরিকল্পনা শুরু হবে তৃণমূল কংগ্রেসের।

শহিদ স্মরণের সমাবেশে পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে এবার পাখির চোখ দিল্লি। তাই বুধবার রাতেই দিল্লির বিমানে চেপে রাজধানীতে পা রেখেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। একই বিমানে ছিলেন ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরও। সূত্রের খবর, জাতীয় রাজনীতিতে তৃণমূল কংগ্রেস বিরোধী দলগুলিকে নিয়ে জোট গঠনের প্রক্রিয়ায় শান দিতে চলেছেন তাঁরা। তাঁদের সঙ্গে বিরোধী শিবিরের বৈঠকের সম্ভাবনাও দেখা দিয়েছে। তবে আজ, বৃহস্পতিবার সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়ের দিল্লির বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজের মধ্য দিয়েই ‘মিশন দিল্লির’ পরিকল্পনা শুরু হবে তৃণমূল কংগ্রেসের।

জানা গিয়েছে, নয়াদিল্লিতে বেশ কয়েকটি বৈঠকের পরিকল্পনা রয়েছে অভিষেকের। তবে সেটা কার কার সঙ্গে তা এখনও খোলসা করেননি কেউ। আজ তৃণমূল কংগ্রেসের সব সাংসদরা সুখেন্দুশেখর রায়ের বাড়িতে গিয়েছেন। এমনকী মুকুল রায়ও এই মধ্যাহ্নভোজে আমন্ত্রিত বলে খবর। এই বৈঠকেই তৈরি হবে ২০২৪ সালের নীল নকশা।।

ইতিমধ্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রকাশ্যে জোট গঠনের ডাক দিয়েছেন। সেকথা শুনেছেন পি চিদম্বরম থেকে শরদ পাওয়ার সকলেই। তারপর প্রশান্ত কিশোর, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই নয়াদিল্লি সফর বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। এখন তাঁর ভরসাতেই যে ২০২৪ সালে বড় স্বপ্ন দেখছেন ঘামফুল শিবির তা হলফ করে বলা যায়।

উল্লেখ্য, গত এক মাসের ব্যবধানে কিশোর দু’বার দেখা করেছেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারের সঙ্গে। তারপর আবার তিনি দেখা করেছেন সোনিয়া, রাহুল এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সঙ্গে। ফলে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে জাতীয় স্তরে জোটের সুতো পাকানোর কাজ যে প্রশান্ত কিশোর ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছেন, তা দেখেছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। আর তাঁর সঙ্গে অভিষেকের উপস্থিতি রাজধানীর রাজনীতির অলিন্দে চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে।

বন্ধ করুন