বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দুই কংগ্রেস নেতার কথোপকথনে অস্বস্তিতে শিবকুমার,দুর্নীতির অভিযোগ সভাপতির বিরুদ্ধে
কর্ণাটকের কংগ্রেস সভাপতি ডিকে শিবকুমার (ছবি : পিটিআই) (HT_PRINT)
কর্ণাটকের কংগ্রেস সভাপতি ডিকে শিবকুমার (ছবি : পিটিআই) (HT_PRINT)

দুই কংগ্রেস নেতার কথোপকথনে অস্বস্তিতে শিবকুমার,দুর্নীতির অভিযোগ সভাপতির বিরুদ্ধে

  • কংগ্রেস সাংসদ উগরাপ্পাকে শোকজ নোটিশ পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি আরেক কংগ্রেস নেতা সেলিমকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

অস্বস্তি বাড়ল কংগ্রেস শিবিরে। এবার দুর্নীতির অভিযোগ উঠল কর্নাটকের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ডি কে শিবকুমারের বিরুদ্ধে। কংগ্রেসেরই দুই নেতার মধ্যে একান্ত গোপন এই কথোপকথনের সময় এই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। ইতিমধ্যে সেই কথোপকথনের ভিডিও প্রকাশ্যেও এসেছে। যদিও এই ভিডিও সম্পর্কে কোনও মন্তব্য করতে চাননি প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি।

সম্প্রতি যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ ভি এস উগরাপ্পা ও মিডিয়া কো–অর্ডিনেটর সেলিম আহমেদ কথা বলছেন। তাঁদের আলোচ্য বিষয় প্রদেশ কংগ্রেস সভারতি ডি কে শিবকুমারকে নিয়ে। সাংবাদিক বৈঠক শুরুর আগে এই দুই নেতা যে কথা বলছেন, তাতে শিবকুমারের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ তুলছেন তাঁরা। একইসঙ্গে শিবকুমারের এক ঘনিষ্ঠ সহযোগী ৫০ থেকে ১০০ কোটি টাকা পর্যন্ত কামিয়েছেন বলেও খবর উঠে আসছে। ভিডিওতে শিবকুমারকে মদ্যপ বলেও অভিহিত করতে দেখা গিয়েছে।

দুই কংগ্রেস নেতার কথোপকথনের এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। এই ভিডিওটিকে রাজনৈতিক হাতিয়ার করতে শুরু করেছে বিজেপি। বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য তাঁর টুইটার হ্যান্ডেলে এই ভিডিওটি শেয়ার করে লিখেছেন, ‘‌প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি ডি এস উগরাপ্পা ও কংগ্রেসের সোশ্যাল মিডিয়ার কো–অর্ডিনেটর সেলিম আলোচনা করছেন, কীভাবে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ডি কে শিবকুমার ঘুষ নেন। তাঁর এক ঘনিষ্ঠ সহযোগী নাকি ৫০ থেকে ১০০ কোটি টাকা উপার্জন করেন। তিনি নাকি মদ্যপ থাকেন।’‌ ইতিমধ্যে কংগ্রেস সাংসদ উগরাপ্পাকে শোকজ নোটিশ পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি আরেক কংগ্রেস নেতা সেলিমকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

 

বন্ধ করুন