বাড়ি > ঘরে বাইরে > মৃত্যুর দোরগোড়া থেকে হারালেন করোনাকে, হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন আয়ুষমন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক
আয়ুষ মন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
আয়ুষ মন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

মৃত্যুর দোরগোড়া থেকে হারালেন করোনাকে, হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন আয়ুষমন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক

  • তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় গত মাসের শেষের দিকে প্লাজমা থেরাপির প্রয়োগ করা হয়েছিল।

করোনাভাইরাস রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর প্রায় একমাস হাসপাতালে ছিলেন। অবশেষে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন কেন্দ্রীয় আয়ুষ মন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক। আপাতত তিনি বাড়িতেই থাকবেন।

গত ১২ অগস্ট প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রীর শরীরে করোনার অস্তিত্ব মিলেছিল। প্রাথমিকভাবে বাড়িতেই নিভৃতবাসে ছিলেন মন্ত্রী। কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরে তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছিল। চিকিৎসা চলাকালীন নায়েকের শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কিছুটা কমে গিয়েছিল। পরে চিকিৎসকদের স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনা হয়েছিল। তাঁকে শারীরিক অবস্থার পর্যবেক্ষণে গোয়ায় এসেছিল এইমসের একটি চিকিৎসকদের দলও।

 গত মাসের শেষের দিকে গোয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিশ্বজিৎ রানে জানিযেছিলেন, কেন্দ্রীয় আয়ুষমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় প্লাজমা থেরাপির প্রয়োগ করা হয়েছিল। সেই সময় তিনি বলেছিলেন, ‘উনি কার্যত মৃত্যুর দোরগোড়ায় চলে গিয়েছিলেন এবং ফিরে এসেছেন। আমরা শ্রীপদ নায়ককে প্লাজমা দিয়েছিলাম এবং ওঁনার জীবন পালটে গিয়েছে। উনি আজ কৃতজ্ঞ যে আমরা প্লাজমা থেরাপি করেছিলাম এবং তাঁর পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে এবং আমি অত্যন্ত খুশি যে উনি ওই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে এসেছেন। আমরা ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।’

শনিবার পানাজির হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর গোয়ার রাজনীতিবিদ বলেন, ‘আমি এখন সুস্থ বোধ করছি। কয়েকদিন বিশ্রামের পর আমি কাজ শুরু করতে পারব।’

বন্ধ করুন