বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Amit Shah Security Lapse: অমিত শাহের নিরাপত্তায় গাফিলতি! বিনা অনুমতিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশে ঘুরঘুর এক ব্যক্তির
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Satish Bate/HT PHOTO)

Amit Shah Security Lapse: অমিত শাহের নিরাপত্তায় গাফিলতি! বিনা অনুমতিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশে ঘুরঘুর এক ব্যক্তির

  • জানা গিয়েছে, ধৃত ব্যক্তির নাম হেমন্ত পাওয়ার। হেমন্ত অন্ধ্রপ্রদেশের এক সাংসদের সহকারী হওয়ার ভান করেছিল বলে অভিযোগ। হেমন্ত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের আই-কার্ড পরে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অমিত শাহের চারপাশে ঘোরাঘুরি করে বলে অভিযোগ।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নিরাপত্তায় গাফলতি। এই সপ্তাহের শুরুতে মুম্বই সফরে গিয়েছিলেন অমিত শাহ। সেই সময় তাঁর নিরাপত্তা বলয় লঙ্ঘন করা হয়েছিল বলে জানানো হল আজ। ঘটনাটি আগে ঘটলেও পুলিশের তরফে আজকেই এই বিষয়ে জানানো হয়েছে। জানা গিয়েছে, একজন ব্যক্তি নিজেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা বলে দাবি করে অমিত শাহের চারপাশে ঘোরাফেরা করেছিলেন। সেই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অমিত শাহের দুই দিনের মুম্বই সফর শেষ হয় গতকাল, বুধবার। এই আবহে নিরাপত্তায় গাফিলতির ঘটনা সামনে এল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মুম্বই ত্যাগ করার পর৷ পুলিশের তরফে জানা যায়, হঠাৎ এক ব্যক্তিকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশপাশে ঘুরঘুর করতে দেখে সন্দেহ হয়েছিল পুলিশের। প্রশ্ন করা হলে সে দাবি করে, আমিত শাহের ব্যক্তিগত সহকারী সে৷ পরে সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করে মুম্বই পুলিশ৷ তদন্ত শুরু হয়েছে।

এদিকে জানা গিয়েছে, ধৃত ব্যক্তির নাম হেমন্ত পাওয়ার। হেমন্ত অন্ধ্রপ্রদেশের এক সাংসদের সহকারী হওয়ার ভান করেছিল বলে অভিযোগ। হেমন্ত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের আই-কার্ড পরে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অমিত শাহের চারপাশে ঘোরাঘুরি করে বলে অভিযোগ। তবে কী কারণে সেই ব্যক্তি অমিত শাহের কাছে গিয়েছিল, এবং সে কী করার চেষ্টা করছিল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। এই আবহে তদন্ত চলছে। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তথ্য উদঘাটনের চেষ্টা করছে পুলিশ।

জানা যায়, অমিত শাহের সঙ্গে থাকা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের এক কর্তার সন্দেহ হয় হেমন্তকে দেখে। পরে তিনি পুলিশকে বিষয়টি জানান। এরপরই হেমন্ত পাওয়ারকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। হেমন্তের কাছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের আই-কার্ড পাওয়া যায়। এদিকে ধৃত নিজে দাবি করে যে সে অন্ধ্রপ্রদেশের এক সাংসদের সহকারী। এরপরই হেমন্ত পাওয়ার নামক সেই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতকে পাঁচদিনের পুলিশি হেফাজতে পাঠানো হয়েছে।

বন্ধ করুন