বাড়ি > ঘরে বাইরে > উহানে ল্যাবরেটরির দুর্ঘটনাই ছড়ায় করোনাভাইরাস, দাবি মার্কিন সংবাদমাধ্যমের
শুক্রবার উহানে এএফপি-র চিত্র সাংবাদিকের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করছেন এক স্বাস্থকর্মী। ছবি: এএফপি। (AFP)
শুক্রবার উহানে এএফপি-র চিত্র সাংবাদিকের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করছেন এক স্বাস্থকর্মী। ছবি: এএফপি। (AFP)

উহানে ল্যাবরেটরির দুর্ঘটনাই ছড়ায় করোনাভাইরাস, দাবি মার্কিন সংবাদমাধ্যমের

  • পরীক্ষাগারের দুর্ঘটনার বিষয়ে সব জেনেও বিশ্বের নজর ঘোরাতে উহানের কাঁচাবাজারকে কাঠগড়ায় তোলে বেজিং। অথচ ওই বাজারে কোনও দিনই বাদুড়ের মাংস বিক্রির চল ছিল না।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঘটেছিল চিনের উহান শহরের এক ল্যাবরেটরি থেকে। আমেরিকার ফক্স নিউজ সংবাদমাধ্যমের দাবিকে নাকচ করলেন না প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ওই রিপোর্টে দাবি করা হয়, ল্যাবরেটরিতে বাদুড় বাহিত নোভেল করোনাভাইরাস নিয়ে পরীক্ষা চালানোর সময় দুর্ঘটনাবশত তা এক শিক্ষানবীশের শরীরে সংক্রামিত হয়, এবং তাঁর থেকেই ক্রমে তা অন্যান্য ব্যক্তিরে মাধ্যমে গোটা শহরে ছড়িয়ে পড়ে।

রিপোর্টের দাবি, পরীক্ষাগারের দুর্ঘটনার বিষয়ে সব জেনেও বিশ্বের নজর ঘোরাতে উহানের কাঁচাবাজারকে কাঠগড়ায় তোলে বেজিং। দাবি করা হয়, বাজারে বিক্রি করা বাদুড়ের মাংস থেকেই মারাত্মক জীবাণু সংক্রমণ ঘটেছিল। কিন্তু সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, উহানের বাজারে কোনও দিনই বাদুড়ের মাংস বিক্রির চল ছিল না।

ফক্স নিউজ-এর রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে যে, করোনাভাইরাস বাদুড়ের শরীরে বরাবরই উপস্থিত থাকে এবং তা জৈব-অস্ত্র হিসেবে ব্যবহারের পরিকল্পনা করেনি চিন। সংক্রমণের উৎস নিছকই দুর্ঘটনা। মারাত্মক জীবাণু সংক্রমণ রোধে আমেরিকার থেকে এগিয়ে রয়েছে চিন, এই তত্ত্ব খাড়া করতেই চিনা কমিউনিস্ট পার্টির নির্দেশে করোনা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হচ্ছিল বলে দাবি মার্কিন সংবাদমাধ্যমের।

গত বুধবার হোয়াইট হাউসের দৈনিক সাংবাদিক বিবৃতি দেওয়ার সময় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে এই নিয়ে প্রশ্ন করার সময় ফক্স নিউজের সাংবাদিক জানান, ‘একাধিক সূত্রে ফক্স নিউজ জানতে পেরেছে যে, প্রাকৃতিক উৎস থেকে সঞ্চারিত করোনাভাইরাস মানবদেহে সংক্রামিত হয়েছিল উহানের এক ভাইরোলজি ল্যাবরেটরি থেকেই। এরপর তা অন্যত্র ছড়িয়ে পড়ে।’

সাংবাদিকের এই বক্তব্যকে স্বীকার না করলেও তা বাতিলও করেননি ট্রাম্প। তবে তিনি জানিয়েছেন, বিষয়টি সম্পর্কে ধীরে ধীরে অনেক কিছুই জানা যাচ্ছে এবং ‘এই নিয়ে আমরা ভেবে দেখব। এই ভয়ংকর পরিস্থিতি সম্পর্কে আমরা অনুসন্ধান করছি।’

প্রেসিডেন্টের কাছে সাংবাদিকরা জানতে চান, বিষয়টি চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে তাঁর সাম্প্রতি ফোনালাপে তুলেছিলেন কি না। ট্রাম্প জানান, ‘ওঁর সঙ্গে চিনের ল্যাবরেটরি নিয়ে কী আলোচনা হয়েছে, তা এখন এখানে জানানো উচিত হবে না।’

ফক্স নিউজের রিপোর্টে করোনা সংক্রমণের ব্যাপ্তি বৃদ্ধির জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভূমিকার বিরুদ্ধেও অভিযোগ তোলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বছর দুই আগে চিনে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসের আধিকারিকরা উহান শহরের গবেষণাগারে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ছাড়াই নানান মারাত্মক জীবাণু নিয়ে পরীক্ষার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছিল। সেই সংবাদ প্রকাশ করেছিল ওয়াশিংটন পোস্ট। উহান কাঁচাবাজারের কাছাকাছি অবস্থান এবং ল্যাবরেটরি কর্মীদের যথাযথ প্রশিক্ষণের অভাব নিয়ে সেই সময় উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল আমেরিকার স্বরাষ্ট্র দফতরও।

বন্ধ করুন