বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জ্বর, মাথাব্যথা? বিবেচিত হবেন সন্দেহভাজন করোনা আক্রান্ত হিসেবে,করতেই হবে পরীক্ষা
কারও জ্বর, মাথাব্যথা, গলাব্যথা বা শ্বাসকষ্ট হলেই তাঁকে সন্দেহভাজন করোনাভাইরাস আক্রান্ত বিবেচনা করা হবে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

জ্বর, মাথাব্যথা? বিবেচিত হবেন সন্দেহভাজন করোনা আক্রান্ত হিসেবে,করতেই হবে পরীক্ষা

  • রাজ্যগুলিকে এমনই নির্দেশ দিল কেন্দ্র।

কারও জ্বর, মাথাব্যথা, গলাব্যথা বা শ্বাসকষ্ট হলেই তাঁকে সন্দেহভাজন করোনাভাইরাস আক্রান্ত হিসেবে বিবেচনা করা হবে। তাঁদের বাধ্যতামূলকভাবে করতে হবে করোনা পরীক্ষা। ওমিক্রন আতঙ্কের মধ্যে রাজ্যগুলিকে এমনই নির্দেশ দিল কেন্দ্রীয় সরকার।

শুক্রবার সকল রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে পাঠানো চিঠিতে কেন্দ্রের তরফে বলা হয়েছে, 'বর্তমানে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধির মধ্যে কারও যদি কাশি-সহ জ্বর বা কাশি ছাড়াই জ্বর থাকে; মাথাব্যথা, গলাব্যথা, শ্বাসকষ্ট, গায়ে যন্ত্রণা থাকে; সম্প্রতি স্বাদ বা গন্ধ হারিয়ে ফেলেন; আলস্য আসে এবং ডায়েরিয়া হয়, তাহলে যতক্ষণ না প্রমাণিত হচ্ছে, ততক্ষণ তাঁকে তাঁকে সন্দেহভাজন করোনাভাইরাস আক্রান্ত হিসেবে বিবেচনা করা হবে। অবশ্যই পরীক্ষা করতে হবে এরকম লোকজনদের। যতক্ষণ না পরীক্ষার ফল আসছে, ততক্ষণে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নির্দেশিকা মেনে বাড়িতেই তাঁদের নিভৃতবাসে থাকার পরামর্শ দিতে হবে।'

গত কয়েকদিন ধরে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। শুক্রবার সকালে কেন্দ্রের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৬,৭৬৪ জন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। দিনকয়েক আগেই সেই সংখ্যাটা ৬,০০০-এর কাছাকাছি ঘোরাফেরা করছিল। শুধু তাই নয়, শেষ ২৪ ঘণ্টায় ৩০৯ জন ওমিক্রন আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। সকাল থেকে আরও একাধিক রাজ্যে একাধিক ওমিক্রন আক্রান্তের খবর পাওয়া গিয়েছে।

সেই পরিস্থিতিতে সব রাজ্যকে বিভিন্ন প্রান্তে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট (র‌্যাট) বুথ খোলার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র। যেখানে ২৪ ঘণ্টাই মানুষ সহজে করোনা পরীক্ষা করতে পারবেন। সেইসঙ্গে সব হাসপাতাল, বেসরকারি হাসপাতাল, ক্নিনিক-সহ সমস্ত স্বাস্থ্যকেন্দ্রেই র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করার অনুমতি দেওয়ার ক্ষেত্রেও সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন