বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাংলাদেশ: পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে গণ্ডগোলের আশঙ্কা, কী কী সতর্কতা নিচ্ছে প্রশাসন
পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে হানার আশঙ্কা। 

বাংলাদেশ: পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে গণ্ডগোলের আশঙ্কা, কী কী সতর্কতা নিচ্ছে প্রশাসন

  • পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দিন বিরোধী দল ও সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীগুলির দ্বারা নাশকতা ঘটানোর আশঙ্কা প্রকাশ করলেন বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল আওয়ামি লিগের উপদেষ্টা আমির হোসেন আমু।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ঘিরে বাংলাদেশের সর্বত্রই উৎসাহ উদ্দীপনা ব্যাপক। বাংলাদেশ সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী আগামী ২৫ জুন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সূচনা হতে চলেছে ও এই অনুষ্ঠান চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত। বাংলাদেশ সরকার সূত্রের খবর অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পারে প্রায় ১০ লক্ষের বেশি মানুষ।

কিন্তু এরই মধ্যে শোনা গেল এক আশঙ্কার সুর। ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল আওয়ামি লিগের উপদেষ্টা আমির হোসেন আমু আশঙ্কা প্রকাশ করে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, সরকারের উন্নয়নে বাঁধা দান করতে দেশের বিরোধী দল ও সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীগুলি সেতু উদ্বোধনের দিন নাশকতামূলক ঘটনা ঘটাতে পারে।

সোমবার ১৩ জুন তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক মঞ্চে দেশকে কলঙ্কিত করতে যে কোনও ধরনের সন্ত্রাস ঘটানো হতে পারে। তিনি দেশবাসীকে এই বিষয়ে সতর্ক থাকতে অনুরোধ করেছেন। তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি ভারতে মহানবীকে নিয়ে তৈরি হওয়া ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশেও অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা হচ্ছে। আবার আন্দোলনের নামেও দেশে অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে বিরোধী দল ও সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী। তবে তিনি দেশবাসিকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, দেশের সরকার যে কোনও রকম প্রতিকূল পরিস্থিতি কড়া হাতে মোকাবিলা করতা প্রস্তুত। খবর বাংলাদেশ সংবাদমাধ্যম সূত্রে।

দ্বিতল বিশিষ্ট পদ্মা সেতু বাংলাদেশের সর্ববৃহত সেতু। সেতুটির মোট দৈর্ঘ্য ৯.৮৩ কিলোমিটার। সেতুটি দেশের দক্ষিণ ও পশ্চিমের ১৯টি জেলাকে সরাসরি যুক্ত করবে।আগামী ২৫ জুন, উদ্বোধনের পর যানবাহন চলাচল আরম্ভ হবে। অদূর ভবিষ্যতে রেল চলাচলও শুরু হবে।

বন্ধ করুন