বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Zomato চালাচ্ছি নাকি, বন্যা দুর্গতদের মুখের ওপর বলে দিলেন জেলাশাসক

Zomato চালাচ্ছি নাকি, বন্যা দুর্গতদের মুখের ওপর বলে দিলেন জেলাশাসক

বিতর্কিত ভিডিয়োর স্ক্রিনশট

ভাইরাল হয়েছে ভিডিয়ো জেলাশাসকের এই তোপের। 

অমানবিকতার চরম সাক্ষী থাকল যোগী রাজ্য। বন্যাদুর্গতদের কোথায় সান্ত্বনা দেওয়া তো নয়, উল্টে তাদের মুখের ওপর কড়া কথা বলে দিলেন রাজ্যের এক জেলাশাসক। মুহূর্তের মধ্যেই সেই ভিডিয়ো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে নেটপাড়ায়। তবে সেই নিয়ে অনুতপ্ত জেলাশাসক, সেরকম কোনও ইঙ্গিত এখনও পাওয়া যায়নি। 

উত্তরপ্রদেশের আম্বেদকর নগরের ঘটনা। সেখানে উত্তরপ্রদেশের জেলাশাসক স্যামুয়েল পল বলছেন যে জোম্যাটো পরিষেবা চালাচ্ছে না সরকার। তিনি বলেন যে সবাইকে একটা নির্দিষ্ট সময় বলে দিতে যাতে খাবার তৈরি করে সেটা পরিবেশন করা যায়। তিনি বলেন যে বাঁধ চৌকি তৈরি করা হয়েছে এই কারণে যাতে স্থানীয়দের সাহায্য দেওয়া যায় ও নূন্যতম পরিষেবা তারা পায়। তবে খুব বেশি যে আশা করা উচিত নয় সেটাও সাফ করে দেন তিনি। 

স্যামুয়েল বলেন, বাঁধ চৌকিতে থাকতে পারেন আপনারা, সেই ব্যবস্থা আছে। আপনাদের ক্লোরিন ট্যাবলেট দেওয়া হবে। আপনারা অসুস্থ হয়ে পড়লে, চিকিৎসকরা আছে যারা আপনাদের এসে দেখে যাবে। তবে এটাই এই পোস্টের কাজ। এখানে জোম্যাটো পরিষেবা নেই যেটা আপনাদের বাড়িতে গিয়ে খাবার দিয়ে আসবে। 

আম্বেদকর নগর সহ বেশ কিছু জেলায় বন্যার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সেই কারণে প্রশাসকদের হাই অ্যালার্টে থাকতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। জেলাশাসকের নেতৃত্বে কন্ট্রোল রুমগুলি যাতে ২৪ ঘণ্টা কাজ করে সেই নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। আম্বেদকর নগর ছাড়াও বসতি, সন্ত কবীর নগর, আজামগড়, মাও, বালিয়া ও অযোধ্যায় বন্যা পরিস্থিতি বেশ খারাপ। ইতিমধ্যেই আকাশ থেকে পরিস্থিতির জরিপ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী ও সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে বলেছেন। 

বর্তমানে রাপ্তি ও নদী বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে। দেওরিয়া ও সন্ত কবীর নগরে এখনও জল উপচে না পড়লেও সেই ভয়ে কাঁটা হয়ে আছেন সাধারণ নাগরিকরা। 

বন্ধ করুন