বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > টিকার শংসাপত্র দিচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়? সাবধান, পড়তে থাকেন জালিয়াতির খপ্পরে!

সোশ্যাল মিডিয়ার পাতা খুললেই এখন চোখে পড়বে টিকাপ্রাপকদের ভ্যাকসিন নেওয়ার ছবি। তবে ওই পর্যন্ত সব ঠিক আছে, এর উপরে ভাবতে গেলেই বাড়বে বিপদ। যদি কোনও সময় টিকাকরণের শংসাপত্রের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার কথা মাথায় আসে তাহলে সাবধান। কারণ, আপনার শংসাপত্র নিয়েই সাইবার অপরাধীরা জালিয়াতি করতে পারে। সেজন্য টিকার শংসাপত্র নেটে ছাড়তে বারণ করছে কেন্দ্র।

এ বিষয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক তাদের ‘সাইবার দোস্ত’ টুইটার হ্যান্ডল থেকে এই সংক্রান্ত পরামর্শ দিয়েছে। এখানে তারা স্পষ্ট লিখেছে, ‘আপনার টিকাকরণের শংসাপত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করার আগে সাবধান।’

কিন্ত কেন এই ধরনের সতর্কতা অবলম্বন করতে বলছে কেন্দ্র?‌ কী বা সমস্যা হতে পারে ভবিষ্যতে, তারও ব্যাখ্যা ওই টুইটে দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্র জানিয়েছে, ‘করোনার শংসাপত্রে টিকাপ্রাপকদের নাম ছাড়াও অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্য থাকে।

কী কী ব্যাক্তিগত তথ্য নথিভুক্ত থাকে প্রাথমিক টিকা শংসাপত্রে? শংসাপত্রে উল্লেখ করা থাকে যে, টিকাপ্রাপককে কোন সংস্থার টিকা দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে কোন তারিখে ও কখন টিকা দেওয়া হল, সেই বিবরণ লেখা থাকে। থাকে টিকাকরণ কেন্দ্র ও টিকাগ্রহণকারীদের নাম। এছাড়াও থাকে তাঁর আধার কার্ডের শেষ চারটি সংখ্যা। এছাড়াও প্রাপক পরেন ডোজ কবে পাবেন, সেটাও উল্লেখ করা থাকে। দু’‌টো ডোজ নেওয়ার পর মূল শংসাপত্রটি দেওয়া হয়।

বন্ধ করুন