বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Gyanvapi Mosque Area Sealed: ‘সমীক্ষার সময় মিলেছে শিবলিঙ্গ’, জ্ঞানবাপী মসজিদের এলাকা সিলের নির্দেশ আদালতের
আদালত নির্দেশিত সমীক্ষার আজকেই শেষ দিন ছিল (PTI)

Gyanvapi Mosque Area Sealed: ‘সমীক্ষার সময় মিলেছে শিবলিঙ্গ’, জ্ঞানবাপী মসজিদের এলাকা সিলের নির্দেশ আদালতের

  • Gyanvapi Mosque Survey: ডিএম, পুলিশ কমিশনার এবং সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সকে মসজিদের সিল করা এলাকার নিরাপত্তার দায়িত্ব দিয়েছে আদালত। উল্লেখ্য, আদালত নির্দেশিত সমীক্ষার আজকেই শেষ দিন ছিল।

সোমবার উত্তরপ্রদেশের বারাণসীর একটি আদালত নির্দেশ দিয়েছে যে জ্ঞানবাপী মসজিদ কমপ্লেক্সের একটি পুকুর সিল করে দেওয়া হয়েছে। দাবি করা হয়, সমীক্ষার সময় একটি ‘শিবলিঙ্গ’ পাওয়া গিয়েছে মসজিদের একটি জায়গায়। সেই নির্দিষ্ট জায়গা সিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বারাণসী আদালত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কৌশল রাজ শর্মাকে ‘এলাকাটি সিল করার এবং এলাকায় কোনও ব্যক্তির প্রবেশ নিষিদ্ধ করার’ নির্দেশ দিয়েছে। আদালতের আদেশে বলা হয়েছে যে ডিএম, পুলিশ কমিশনার এবং সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স (সিআরপিএফ) কমান্ড্যান্ট বারাণসীর মসজিদের সিল করা এলাকার নিরাপত্তার জন্য দায়ী থাকবেন।

একজন আইনজীবী সিভিল জজ সিনিয়র ডিভিশন রবি কুমার দিবাকরের আদালতে একটি পিটিশন দাখিল করেন। তাঁর আবেদনে আইনজীবী বলেন, মসজিদের কিছু এলাকায় সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। এই আবহে সেই এলাকাকে রক্ষা করার আবেদন জানিয়ে এই পিটিশন দাখিল করা হয়। এদিকে জ্ঞানবাপী মসজিদ পরিচালনাকারী আনজুমান ইন্তেজামিয়া মসজিদ কমিটির যুগ্ম সম্পাদক এসএম ইয়াসিন বলেছেন, ‘আমরা আদালতের আদেশ অনুসারে কাজ করেছি এবং জরিপে সম্পূর্ণ সহযোগিতা করেছি। আমি গভীরভাবে আঘাতপ্রাপ্ত যে আবেদনকারীরা জরিপের কার্যক্রমের বিবরণ ফাঁস করে দিচ্ছেন।’

উল্লেখ্য, আদালতের নির্দেশে ১৪ মে ফের একবার শুরু হয় কাশীর জ্ঞানবাপী মসজিদের সমীক্ষার কাজ। দিল্লির বাসিন্দা রাখি সিং, লক্ষ্মী দেবী, সীতা সাহু এবং অন্যান্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বারাণসী জেলা আদালতের নির্দেশে এই সমীক্ষা চালানো হচ্ছে। এই আবহে সমীক্ষা শুরু হলেও তা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। সমীক্ষা ও ভিডিয়োগ্রাফির সময় বারাণসীর জ্ঞানবাপী-শ্রীঙ্গার গৌরী কমপ্লেক্সের খুব কাছেই দুটি স্বস্তিকের চিহ্ন দেখা গিয়েছিল বলে দাবি করেছিলেন সমীক্ষার ভিডিয়োগ্রাফার। এরপর উত্তেজনা ছড়ায়। পরে বিক্ষোভের মুখে সমীক্ষা স্থগিত রাখা হয়। এরপরই মুসলিম পক্ষ কমিশনারের অপসারণের দাবি জানায়। তবে আদালত কমিশনা বদলের আর্জি খারিজ করে। উপরন্তু দ্রুত সমীক্ষা সম্পন্ন করে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেয়। এই আবহে সমীক্ষা চলাকালীন মসজিদের ভিতরে একটি এলাকায় শিবলিঙ্গ মিলেছে বলে দাবি উঠলে সেই নিয়ে মামলা দায়ের হয়।

বন্ধ করুন