বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘সংবিধানের ৩৭০ ধারা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়,’ বলেই দিলেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী
ফাইল ছবি : রয়টার্স  (Reuters)

‘সংবিধানের ৩৭০ ধারা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়,’ বলেই দিলেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী

  • সম্প্রতি পাকিস্তানের একটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাত্কারে শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেন, '৩৭০ অনুচ্ছেদটি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।'

জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে সবসময়েই ভারতের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। এহেন কুরেশির কথায় হঠাত্ অন্য সুর। সম্প্রতি পাকিস্তানের একটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাত্কারে শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেন, '৩৭০ অনুচ্ছেদটি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।' অর্থাত্ জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে হঠাত্ই নরম সুর পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রীর কথায়।

এরপরেই তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে বিতর্ক শুরু হয়। তাঁর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন পাকিস্তানের বিরোধী নেতারা। তাঁর এই মন্তব্যের জন্য জবাবদিহি চাইতে শুরু করে বিরোধীরা। চাপের মুখেই অবশ্য ফের আগের অবস্থানেই ফিরে এলেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী। একটি বিবৃতি দিয়ে জানালেন, 'জম্মু-কাশ্মীর কখনই ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় হতে পারে না।'

সোশ্যাল মিডিয়ায় যদিও পাক বিদেশমন্ত্রীর সেই সাক্ষাত্কারের ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। সেখানে তাঁকে বলতে দেখা যাচ্ছে যে, '৩৭০ অনুচ্ছেদ তুলে নেওয়ার সঙ্গে আমাদের কোনও সমস্যা নেই। ৩৭০ অনুচ্ছেদের সঙ্গে পাকিস্তানের কোনও যোগ নেই।' উনি জানান যে এটি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। যদিও এরপর তিনি বলেন যে ভারতের ৩৫এ সরানো নিয়ে পাকিস্তানের আপত্তি রয়েছে।

দেখুন সেই ভিডিয়ো:

এরপর সোমবার আবার উল্টো কথা বললেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী। টুইট করে জানালেন যে এটি রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ পর্যন্ত পৌঁছেছে। আন্তর্জাতিক স্তরে এটি দেখা হচ্ছে। জম্মু-কাশ্মীর সংক্রান্ত কোনও কিছুই ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় হতে পারে না।

এই টুইটের পর অবশ্য তাঁর সেদিনের মন্তব্যের ভিত্তি খোঁজার চেষ্টা করছেন অনেকেই। হঠাত্ তাঁর মুখে কেন উল্টো সুর, কেনই বা সাফাই গাইলেন, তাই নিয়ে বিভ্রান্ত পাকিস্তানের রাজনৈতিক মহল।

বন্ধ করুন