বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কৃষকদের সমর্থনে সোমবার দিনভর অনশনে বসছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল
বিক্ষোভরত কৃষকদের সমর্থনে সোমবার একদিনের প্রতীকী অনশনে বসবেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।
বিক্ষোভরত কৃষকদের সমর্থনে সোমবার একদিনের প্রতীকী অনশনে বসবেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

কৃষকদের সমর্থনে সোমবার দিনভর অনশনে বসছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল

  • দলীয় কর্মী-সমর্থকদেরও কৃষকদের সমর্থন জানাতে একদিনের অনশন পালনের আবেদন জানিয়েছেন আপ প্রধান।

কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভরত কৃষকদের (farmers protest) সমর্থনে সোমবার একদিনের প্রতীকী অনশনে বসবেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টি প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। রবিবার এই ঘোষণা করার পাশাপাশি তিনি দলীয় কর্মী-সমর্থকদেরও কৃষকদের সমর্থন জানানোর আবেদন জানিয়েছেন আপ প্রধান।

গত সেপ্টেম্বর মাসে পাশ করানো তিন কৃষি আইন (Farm Laws) প্রত্যাহারের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদনজানিয়ে কেজরিওয়াল নতুন একটিআইন করে কৃষকদের স্বার্থে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নিশ্চিত করার দাবিও জানিয়েছেন।

এ দিন কেজরিওয়াল বলেন, ‘দেশের সমস্ত আপ সমর্থকদের কাছে আবেদন জানাচ্ছি, সোমবার প্রতিবাদী কৃষকদের সমর্থনে একদিনের অনশন পালন করুন। আমিও একদিনের অনশন পালন করব। আসুন বাড়ি থেকেই আমরা কৃষকদের সমর্থন জানাই। আমি জানি, রাজ্যের একাধিক সীমানায় জড়ো হওয়া প্রতিবাদী কৃষকদের সঙ্গে শারীরিক ভাবে যোগ দিতে অনেকেই পারবেন না। পরিবর্তে বাড়িতে একদিনের অনশন পালন করে ওঁদের পাশে দাঁড়ান।’

প্রতিবাদী কৃষকদের সমর্থন জানালে দেশদ্রোহী তকমা পাওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘গত কয়েক দিনে বেশ কিছু বিজেপি নেতাকে প্রতিবাদী কৃষকদের দেশদ্রোহী বলতে শুনেছি। ওঁদের কাছে আমার প্রশ্ন, এত জন প্রাক্তন সেনাকর্মী, ক্রীড়াবিদ, শিল্পী, চিকিৎসক, আইনজীবী ও ব্যবসায়ী নানান ভাবে কৃষকদের বিক্ষোভ সমর্থন করছেন। ওঁরা সকলেই তা হলে দেশদ্রোহী?’

এই প্রসঙ্গে তিনি ২০১১ সালে অন্না হাজারের নেতৃত্বে দুর্নীতি বিরোধী আন্দোলনের কথা বলেন। তাঁর দাবি, সেই সময় আন্দোলন থামাতে একই পন্থা অবলম্বন করেছিল তৎকালীন কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার।

কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের বিরুদ্ধে দিল্লি ও সংলগ্ন অঞ্চলে বিক্ষোভে নেমেছেন প্রধানত পঞ্জাব ও হরিয়ানার কৃষকরা। অন্য দিকে সরকারের আশ্বাস, ই তিন আইনে আখেরে কৃষকদেরই উন্নতি হবে। কৃষকদের পালটা দাবি, নতুন আইনে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য নীতি রদ করা হয়েছে এবং নিত্যবাজার তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

 

বন্ধ করুন