বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দেশের সবচেয়ে কম বয়সী মেয়র হচ্ছেন কেরালার আর্যা রাজেন্দ্রন
আর্যা রাজেন্দ্রন
আর্যা রাজেন্দ্রন

দেশের সবচেয়ে কম বয়সী মেয়র হচ্ছেন কেরালার আর্যা রাজেন্দ্রন

  • মাত্র একুশেই থিরুবনন্তপুরমের মেয়র হচ্ছেন এই সিপিআইএম নেত্রী। 

মাত্র ২১ বছর বয়সেই মেয়র! তাও কোনও ছোটোখাটো শহর নয়, কেরালার রাজধানী থিরুবনন্তপুরমের পুরসভার দায়িত্ব সামলাবেন কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী আর্যা রাজেন্দ্রন। তাঁকেই এই গুরু দায়িত্ব দিয়েছে সিপিআইএম। 

অল সেন্টস কলেজে বিএসসি ম্যাথামেটিকস পড়ছেন এই বাম নেত্রী। এর আগে ২৩ বছর বয়সে এলাহাবাদের মেয়র হয়েছিলেন অভিলাষা গুপ্ত নন্দী। এবার তাঁর রেকর্ড ভেঙে যাচ্ছে। নিম্মমধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে আর্যা। একতলার বাড়ির সামনে কাঁচা রাস্তা। কিন্তু ছোটো বেলা থেকেই সমাজকে বদলাবার ইচ্ছে ছিল মনে। বাবা পেশায় ইলেকট্রিশিয়ান, মা এলআইসি এজেন্ট। প্রথমবারের কাউন্সিলার জানান যে খুব ছোটো বেলা থেকেই তিনি রাজনীতির বিষয় উৎসাহী। দলের এই দায়িত্ব তিনি সানন্দে গ্রহণ করেছেন। 

প্রসঙ্গত, কেরালায় স্থানীয় নির্বাচনে আশাতীত ভালো ফল করেছে বামেরা। থিরুবনন্তপুরমে এলডিএফের সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয় বিজেপির। ১০০ আসনের পুরসভায় এলডিএফ পেয়েছে ৫২, বিজেপি পেয়েছে ৩৫। কয়েক মাস বাদেই বিধানসভা ভোট। তার আগে যুব সমাজের মন পেতেই আর্যার মতো এক নবাগতাকে দায়িত্ব দেওয়া হল বলে মনে করা হচ্ছে। মেয়র হওয়ার লড়াইয়ে ছিলেন জামিলা শ্রীধরন ও অন্যান্য নেতারা। মাত্র ছয় বছর বয়সেই সিপিএমের শিশুদের সংগঠন বাল সংগমের সদস্যপদ গ্রহণ করেন আর্যা। এখন তিনি সেই সংগঠনের রাজ্য সভাপতি ও একই সঙ্গে এসএফআইয়ের রাজ্য কমিটির সদস্য। 

মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী কেকে শৈলজাকে নিজের আইডল মানেন আর্যা। থিরুবনন্তপুরমের জন্য দুচোখে অনেক স্বপ্ন হবু মেয়রের। সবার জন্য স্বাস্থ্য পরিষেবার ব্যবস্থা করতে চান তিনি। শহর যাতে আরও সাফসুতরো তার জন্য জঞ্জাল ফেলার ব্যবস্থা ঢেলে সাজাতে চান তিনি। তবে এই সবের মধ্যে তাঁর পড়াশোনাটা চালিয়ে যেতে চান হবু মেয়র। তিনি বয়সে অল্প ছাত্রী বলেই মানুষ তাঁকে আশীর্বাদ দিয়েছে বলে মনে করেন আর্যা। তাই জনগণের জন্য কাজের সঙ্গে সঙ্গে পডা়টা চালিয়ে যাবেন ২১ বছরের তরুণী।

বন্ধ করুন