বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Aryan Khan Drugs Case: আরিয়ানকে মাদক মামলায় না ফাঁসানোর জন্য শাহরুখের থেকে ১৮ কোটি চাওয়া হয়, বলছে CBI

Aryan Khan Drugs Case: আরিয়ানকে মাদক মামলায় না ফাঁসানোর জন্য শাহরুখের থেকে ১৮ কোটি চাওয়া হয়, বলছে CBI

আরিয়ান খান এবং সুহানা খান (AP)

২০২১ সালের অক্টোবরে মুম্বই উপকূলে এক প্রমোদতরী থেকে বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ানকে মাদকাণ্ডে গ্রেফতার করেছিল নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। সেই ঘটনায় সারা দেশে তোলপাড় হয়েছিল। এই ঘটনায় রাজনীতির রং লেগেছিল।

২০২১ সালের অক্টোবরে মুম্বই উপকূলে এক প্রমোদতরী থেকে বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ানকে মাদকাণ্ডে গ্রেফতার করেছিল নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। সেই ঘটনায় সারা দেশে তোলপাড় হয়েছিল। এই ঘটনায় রাজনীতির রং লেগেছিল। সেই সময় নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো তথা এনসিবির জোনাল হেড ছিলেন সমীর ওয়াংখেড়ে। তাঁর নেতৃত্বেই হয়েছিল প্রমোদতরীতে হানা দিয়েছিল এনসিবি। সেই সমীরের বিরুদ্ধে শুরু হয়েছে সিবিআই তদন্ত। এই আবহে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা বলছে, আরিয়ানকে এই মাদক কাণ্ডে না ফাঁসানোর শর্তে শাহরখ খানের থেকে ২৫ কোটি টাকা হাতাতে চেয়েছিলেন এনসিবির সাক্ষীরা। পরে ১৮ কোটি টাকায় রফাদফা হয়েছিল 'চুক্তি'।

জানা গিয়েছে, সেই এনসিবি হানায় সাক্ষী হিসেবে গিয়েছিলেন কেপি গোসাভি। গোসাভির সঙ্গে সমীরের অবাধ মেলামেশার জেরে মনে হয়েছিল যেন গোসাভি নিজেও এনসিবি অফিসার। পরে এই গোসাভি ১৮ কোটি টাকার মধ্যে ৫০ লাখ ঘুষ নিয়েছিলেন। পরবর্তীতে যদিও সেই টাকা ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে জানাচ্ছে সিবিআই। এদিকে কোনও অভিযুক্তের গ্রেফতারির পর তার সঙ্গে সাক্ষীর দেখা করা নিয়ম বিরুদ্ধ। এমনকী যে রাতে আরিয়ানকে গ্রেফতার করা হয়েছিল, সে রাতে দেখা গিয়েছিল, এই গোসাভি আরিয়ানকে হাত ধরে এনসিবি অফিসের ভিতরে নিয়ে যাচ্ছেন।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ৩ অক্টোবরের অভিযানের পর এনসিবি দাবি করেছিল, ১৩ গ্রাম কোকেন, পাঁচ গ্রাম মেফেড্রোন, ২১ গ্রাম গাঁজা, ২২টি এমডিএমএ ট্যাবলেট বাজেয়াপ্ত করেছিল তারা। আরিয়ান খান, আরবাজ খান এবং মুনমুন ধামেচাকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। পরে এই মামলায় আরও ১৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। একটি হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটকে ভিত্তি করে এনসিবি অভিযোগ করেছিল, আরিয়ান খান বৃহতত্তর ষড়যন্ত্রের অংশ।

শাহরুখ পুত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল, আরিয়ান বিদেশি মাদক পাচারকারীর সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছেন এবং বিপুল পরিমাণে মাদক কিনেছেন। তবে পরবর্তীতে আদালতে এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে কোনও সঠিক তথ্যপ্রমাণ পেশ করতে পারেননি সমীর ওয়াংখেড়েরা। পরে বিশেষ তদন্তকারী দল গঠন করা হয়েছিল এই মামলায়। ১৪ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট গঠন করা হলেও আরিয়ানকে ক্লিনচিট দেওয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল, আরিয়ানের কাছে কোনও মাদক পাওয়া যায়নি। এদিকে সমীর ওয়াংখেড়েকে চেন্নাইয়ের ট্যাক্সপেয়ার সার্ভিসে বদলি করে দেওয়া হয়।

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

গ্রেফতার আইএসএফ নেত্রী জুবি সাহা, সন্দেশখালি কাণ্ডে প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ বিরতি কাটিয়ে কাজে ফিরছেন প্রিয়াঙ্কা, কোন কোন ছবিতে দেখা যাবে দেশি গার্লকে মাসের প্রথম দিনে মেজাজ ভালো রাখতেই হবে, পড়ে নিন দিনের সেরা ৫ জোকস, থাকুন আনন্দে অরিন্দম নয়, সৃজিতের হাত ধরে শহরে আসছে নতুন গোয়েন্দা বিদ্যুৎলতা বটব্যাল? মার্চের মাঝখানে গঠিত হচ্ছে বুধাদিত্য যোগ, ৪ রাশির কপাল খুলবে, সব ইচ্ছা হবে পূরণ জাতীয় ট্রায়ালে নামছেন না, উল্টে ফেডারেশনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে বজরং মোদীর বঙ্গ সফরের আগে ভোররাত পর্যন্ত বৈঠক দিল্লিতে, চূড়ান্ত ৫০% প্রার্থীর নাম মঙ্গলে নির্মলা দর্শন ডিএ আন্দোলকারীদের, আর বৃহস্পতি রাতেই এল লক্ষ্মীলাভের খবর! Onion Benefits: কাঁচা পেঁয়াজ খেতে চান না? মুখে গন্ধের ভয়ে? এর উপকারিতা জানলে অন্য কিছু ভাববেন ৯ উইকেটে ২৬৭ থেকে ৪০০-র দরজায় অস্ট্রেলিয়া,শেষ উইকেটে রেকর্ড জুটি গ্রিন-হেজেলউডের

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.