বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বেতন পাচ্ছেন না BharatPe কর্মীরা, 'অত সহজ নয়,' বললেন অশনীর
প্রতীকী ছবি: টুইটার (Twitter)

বেতন পাচ্ছেন না BharatPe কর্মীরা, 'অত সহজ নয়,' বললেন অশনীর

  • বুধবার, ভারতপের এক আইটি কর্মী লিঙ্কডইনে সরব হন। তাঁর দাবি, তিনি এবং অন্যান্য কর্মীরা মার্চ মাসের বেতন পাননি।

অন্তহীন BharatPe পরিচালন কমিটি এবং অশনীর গ্রোভারের বিরোধ। এক কর্মচারীর পোস্টের পর আবারও উস্কে গেল বিতর্ক। সম্প্রতি লিঙ্কডইনে মার্চ মাসের বেতন পাননি বলে অভিযোগ জানান সংস্থার এক কর্মী। তার প্রেক্ষিতেই বোর্ডের বিরুদ্ধে এক হাত নিলেন অশনীর গ্রোভার।

বুধবার, ভারতপের এক আইটি কর্মী লিঙ্কডইনে সরব হন। তাঁর দাবি, তিনি এবং অন্যান্য কর্মীরা মার্চ মাসের বেতন পাননি।

'শুরু থেকেই আমরা BharatPe-তে আছি। আজ আমরা আপনাদের অভ্যন্তরীণ রাজনীতির কারণে সমস্যায় পড়ে গিয়েছি,' লিখেছেন করণ সারাকি নামের ওই কর্মী। ভারতপে-র সিইও সুহেল সমীর এবং সহ-প্রতিষ্ঠাতা অশনীর গ্রোভার এবং শাস্বত নাকরানিকে ট্যাগ করা হয়েছে।

সারাকি দাবি করেন, ভারতপে নিজেদের ছোটখাটো খরচের জন্য তাঁদের পকেট থেকে অর্থ ব্যয় করে। সেটাও তাঁদের ফেরত দেওয়া হয়নি।

'আমরা দুঃস্থ। আমাদের সংসার চালাতে হয়। বাড়িতে ছোট বাচ্চা আছে,' তিনি লিখেছেন। 'BharatPe-এর সমস্ত উর্ধ্বতনরা গোয়ায় অফিসের টাকায় ট্রিপ উপভোগ করছে এদিকে আমরা কর্মীরা বেতন এবং চাকরির জন্য লড়াই করছি। এই আপনাদের নেতৃত্ব?' লেখেন তিনি।

অশনীর গ্রোভার সুহেলকে বিষয়টি দেখতে বলেন। তিনি লেখেন, 'এটা ঠিক নয়।' তিনি বলেন, 'সবার আগে ওঁদের বেতন দিতে হবে।'

আশনির গ্রোভারের বোন অশীমা গ্রোভারও রিপ্লাই করেন। তিনি ভারতপের শীর্ষ ম্যানেজমেন্টতে 'নির্লজ্জের দল' হিসাবে বর্ণনা করেন।

ফাইল ছবি: লিঙ্কডইন
ফাইল ছবি: লিঙ্কডইন (LinkedIn)

সুহেল সমীর অশীমার মন্তব্যের পাল্টা আঘাত করেন। তিনি লেখেন, 'তেরে ভাই নে সারা পয়সা চুরা লিয়া (তোমার ভাই সব টাকা চুরি করে নিয়েছে)। বেতন দেওয়ার মতো খুব কম টাকাই পড়ে আছে।'

সুহেলের এমন চাঁচাছোলা মন্তব্যে সকলেই চমকে যান। এক জন্য সিইও-র এমন 'ভাষা'-র তীব্র নিন্দার ঝড় ওঠে।

বৃহস্পতিবার টুইট করেন অশনীর। সেখানে লেখেন, 'রাজনীশ কুমার ও সুহেল সমীরের নেতৃত্বে, প্রথমবার কোনও ত্রৈমাসিকে অবনমন ও সর্বোচ্চ টাকা নষ্টের রিপোর্ট করল ভারতপে।'

এরপরেই তিনি লেখেন, 'চাবি ছিনিয়ে নেওয়া ও হাতি চালানো -দু'টি সম্পূর্ণ আলাদা স্কিল। এবার 'নানি'র নাম মনে পড়ে যাবে। বাজার-ই হল সবচেয়ে কঠিন পরীক্ষা ও সত্য।'

অশনীর গ্রোভার এবং তাঁর স্ত্রী মাধুরী জৈন গ্রোভারের বিরুদ্ধে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। মাধুরী জৈন গ্রোভারকে ফেব্রুয়ারিতে কোম্পানির নিয়ন্ত্রণ প্রধানের পদ থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল। মার্চ মাসে অশনীর গ্রোভারকে এমডি-র পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

বন্ধ করুন