বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘‌‌জোটের জন্য আমাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে’‌, উপনির্বাচনে একা লড়ার ডাক ভূপেনের
অসম কংগ্রেসের প্রদেশ সভাপতি ভূপেন কুমার বোরা। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
অসম কংগ্রেসের প্রদেশ সভাপতি ভূপেন কুমার বোরা। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

‘‌‌জোটের জন্য আমাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে’‌, উপনির্বাচনে একা লড়ার ডাক ভূপেনের

  • কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, অতীতে জোট করে পস্তাতে হয়েছে। তাই উপনির্বাচনে একক শক্তিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে কংগ্রেস।

অসমের কয়েকটি আসনে উপনির্বাচন বাকি। আর সেই উপনির্বাচনে নিজেদের শক্তি যাচাই করে নিতে চায় কংগ্রেস। অর্থাৎ এই উপনির্বাচনে কংগ্রেস আর জোটের রাস্তায় হাঁটবে না। একক শক্তিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এবার সেই বার্তা স্পষ্ট করে দেওয়া হল। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, অতীতে জোট করে পস্তাতে হয়েছে। তাই উপনির্বাচনে একক শক্তিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে কংগ্রেস।

এখন সেখানে হিমন্ত বিশ্বশর্মার সরকার। সদ্য জিতেই তিনি মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। বিজেপি এখানে তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে অসম কংগ্রেসের প্রদেশ সভাপতি ভূপেন কুমার বোরা বলেন, ‘‌জোটের জন্য আমাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। স্থানীয় নেতৃত্ব হৃদয়ে আঘাত পেয়েছিলেন সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে যে ক্ষতি হয়েছিল তার জন্য। আমরা নিজেদের সাংগঠনিক ভিতকে শক্ত করতে চাই এবং আসন্ন উপনির্বাচনে একক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাই।’‌

বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল থেকে জানা গিয়েছে, এখানে ১০টি বিরোধী দল মিলে মহাজোট হয়েছিল। সেখানে মহাজোট মোট ৫০টি আসন পেয়েছিল। যার মধ্যে কংগ্রেসের ছিল ২৯টি আসন। এখানে মোট ১২৬টি আসন। সেখানে বিজেপি এককভাবে ৭৫টিউ আসন নিয়ে সরকার গঠন করে। তাই কংগ্রেস জোট না করে উপনির্বাচনে একক শক্তিতে লড়াই করতে চাইছে। মহাজোটের শরিক এআইইউডিএফ–এর সঙ্গে জোট করতে রাজি নয়। তারা ১৬টি আসন পেয়েছিল।

এখন এখানে কয়েকটি বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন বাকি। এই বিষয়ে অসম কংগ্রেসের প্রদেশ সভাপতি ভূপেন কুমার বোরা বলেন, ‘‌আমাদের বাস্তবের উপর হাঁটতে হবে। মাজুলি আসনে আমরা ৪৮ হাজারের বেশি ভোটে হেরেছি। তাই আমাদের ভেবেচিন্তে পা ফেলতে হবে। আমরা সঠিকভাবেই উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর প্রার্থীর আবেদন গ্গহণের চূড়ান্ত সময়সীমা রাখা হয়েছে।’‌

বন্ধ করুন