বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বুথে ভোটার ৯০, ভোট পড়ল ১৭১!‌
ফাইল চিত্র
ফাইল চিত্র

বুথে ভোটার ৯০, ভোট পড়ল ১৭১!‌

  • ওই বুথের দায়িত্বে থাকা ৫ জন পোল অফিসারকে সাসপেন্ড করেছে জেলা ইলেকশান অফিসার।

ভোটে ব্যাপক গড়মিলের সামনে এল।ঘটনাটি ঘটেছে অসমের হাফলঙ বিধানসভা কেন্দ্রের একটি বুথে।জানা গিয়েছে, ওই বুথে মোট ভোটারের সংখ্যা ৯০ জন।কিন্তু ইভিএমে ভোট পড়েছে ১৭১টি। কিভাবে এটা সম্ভব হল, তা নিয়েই প্রশ্ন উঠছে।ইতিমধ্যে ওই বুথের দায়িত্বে থাকা ৫ জন পোল অফিসারকে সাসপেন্ড করেছে জেলা ইলেকশন অফিসার। ওই বুথে পুনরায় নির্বাচনের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত এক আধিকারিক জানান, গ্রামের প্রধান ভোটার তালিকা মেনে নেননি। তাঁর ইচ্ছেমতো একটি তালিকা নিয়ে আসে। সেই তালিকা অনুযায়ী ভোট হয়।কিন্তু কেন ওই গ্রাম প্রধানের কথা মেনে নিলেন ওই নির্বাচনী আধিকারিকরা, সেই বিষয়টি অবশ্য স্পষ্ট নয়। বুথে কী কোনও নিরাপত্তারক্ষী ছিল না?‌ এই প্রশ্নটিও উঠছে।নিরাপত্তারক্ষী যদি থেকেও থাকে, তাহলে তাঁদের ভূমিকাই বা কী ছিল, সেই প্রশ্নও কিন্তু উঠতে শুরু করেছে।

 

উল্লেখ্য, গত ১ এপ্রিল ওই কেন্দ্রের বুথে ভোট হয়।এরপর দিনই জেলা ইলেকশন অফিসার বুথের ওই পাঁচ জন নির্বাচনী আধিকারিককে বরখাস্তের নির্দেশ দেন। কিন্তু এদিন সকালে গোটা বিষয়টি সকলের সামনে আসে। ওই বুথে পুনরায় নির্বাচনের প্রস্তাব দেওয়া হলেও এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে তা জানানো হয়নি।বু থটি মৌলদাম এলপি স্কুলের একটি বুথ। যে পাঁচ জনকে ওই ঘটনার জেরে বরখাস্ত করা হয়েছে, তাঁরা হলেন, সেক্টর অফিসার সইকোসিয়াম ল্যাংগাম, প্রিসাইডিং অফিসার প্রহ্লাদ চন্দ্র রায়, প্রথম পোলিং অফিসার পরমেশ্বর চারাঙসা, দ্বিতীয় পোলিং অফিসার স্বরাজ কান্তি দাস ও তৃতীয় পোলিং অফিসার লালজামলো থিক।

বন্ধ করুন