বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Assam Flood: উত্তর পূর্বে আরও বিপদের আশঙ্কা, অসমে লাল সতর্কতা, জানুন পরিস্থিতি
অসমের ডিমা হাসাও জেলায় ধসে গিয়েছে রাস্তার একাংশ।(Dima Hasao district administration via AP) (AP)

Assam Flood: উত্তর পূর্বে আরও বিপদের আশঙ্কা, অসমে লাল সতর্কতা, জানুন পরিস্থিতি

  • রাস্তা ও রেলপথের একাংশ স্রোতে ভেসে যাওয়ায় প্রায় ২ লক্ষ বাসিন্দা দেশের অন্য অংশের থেকে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছেন। সব মিলিয়ে ৮১১টি গ্রাম জলমগ্ন হয়ে রয়েছে। ১২৭৭টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৫২৬২টি বাড়ি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ইশিকা যাদব

টানা বৃষ্টি। আর তার জেরে ভয়াবহভাবে বিপর্যস্ত অসমের বিস্তীর্ণ এলাকা। তবে আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, এখনই এই বিপর্যয় থেকে মুক্তির পথ নেই। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুসারে আগামী তিনদিন প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরপূর্বের এই এলাকাগুলিতে।

এদিকে প্রচন্ড বৃষ্টি, ধস, জল কাদার স্রোতের জেরে রেল ও সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেকটাই বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। এদিকে বছরের প্রথম টানা বৃষ্টিতে একেবারে ভয়াবহ অবস্থা অসমের বিস্তীর্ণ এলাকায়। নদীর জলতলও ক্রমশ বাড়ছে। 

এদিকে রাস্তা ও রেলপথের একাংশ স্রোতে ভেসে যাওয়ায় প্রায় ২ লক্ষ বাসিন্দা দেশের অন্য অংশের থেকে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছেন। সব মিলিয়ে ৮১১টি গ্রাম জলমগ্ন হয়ে রয়েছে। ১২৭৭টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৫২৬২টি বাড়ি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বহু বাড়িতে জল ঢুকে গিয়েছে। এর জেরে তাঁরা নিরাপদ জায়গায় আশ্রয় নিয়েছেন। 

আবহাওয়া দফতর সূূত্রে খবর, আগামী তিনদিন ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে এই রিজিয়নে। বুধবারও অসমে রেড অ্যালার্ট বা লাল সতর্কতা জারি থাকবে। খবর আবহাওয়া দফতর সূত্রে। এদিকে উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলাতেও আগামী কয়েকদিন ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। 

সূত্রের খবর সাত জেলায় ৫৫টি ত্রাণ শিবির করা হয়েছে। ৩৩ হাজার মানুষকে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। ১২টি ত্রাণ বণ্টন শিবির করা হয়েছে। NDRF, SDRF সহ স্থানীয় বাসিন্দারাও উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন।

বন্ধ করুন